ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও গাজীপুরে কালবৈশাখী ঝড়ে নিহত ৩

প্রকাশিত

ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নবীনগর উপজেলা ও গাজীপুরে কালবৈশাখী ঝড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার (২১ এপ্রিল) বিকেলে পৃথকভাবে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের বড়িকান্দি গ্রামের দক্ষিণপাড়া মহল্লার মৃত শরফত আলীর ছেলে আলী আকবর, একই উপজেলার লহরী গ্রামের উত্তরপাড়া’র মরহুম আবু সামা মিয়ার ছেলে মহিউদ্দীন আহাম্মেদ এবং গাজীপুরের স্কুলছাত্রী নাসরিন আক্তার জোসনা। তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের চন্দনা এলাকার ভারটেক্স আইডিয়াল স্কুলে দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার ঢাকা থেকে ফেরার পথে নরসিংদী লঞ্চঘাট থেকে স্পীডবোর্ডে সলিমগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন মহিউদ্দীন আহাম্মেদ। এ সময় ঝড়ো হাওয়ায় স্পীডবোর্ড উল্টে যায়। অপরদিকে বিকেলে উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের বড়িকান্দি গ্রামের দক্ষিণপাড়া মহল্লার একটি বিল থেকে বাড়িতে আসার পথে কালবৈশাখী ঝড়ে একটি গাছ বৃদ্ধ আলী আকবরের উপর পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এছাড়া কালবৈশাখীর তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে নবীনগরের বিভিন্ন এলাকা। ভেঙে গেছে কয়েক শতাধিক টিনশেডসহ কাঁচা ঘরবাড়ি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গাছপালা ও উঠতি ফসল জমি।

এদিকে গাজীপুরে শনিবার বিকেলে কালবৈশাখীতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ে সিটি করপোরেশনের চান্দনা রওশন সড়ক এলাকায় সফি টেক্সটাইল মিলের ছাদের উপর নির্মিত টিন সেডের চালা উড়ে যায়। ঝড়ে ওই চালাটি কারখানার নিচে জাকিরের বাড়িতে গিয়ে পড়ে। এতে ওই বাড়িতে বেড়াতে আসা এক স্কুলছাত্রী নিহত ও অপর একজন আহত হয়েছেন। আহতকে উদ্ধার করে শহীদ তাজ উদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।