সর্বহারার সন্ত্রাসী কাদেরকে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশিত

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : 

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার তিওরবিলা গ্রামের মাঠে পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট (সর্বহারা) পার্টির সদস্য ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী আবদুল কাদের জোয়ার্দারকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাতে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

কাদের জোয়ার্দার ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার তাহেরহুদা গ্রামের মহিউদ্দীন জোয়ার্দারের ছেলে। কাদেরের বিরুদ্ধে হরিণাকুণ্ডু থানায় একটি হত্যা অপহরণ ও চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

আরো পড়ুন :  ৪ কোটি টাকার ইয়াবা মিললো খাটের নিচে

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুদ্দিন জানান, মঙ্গলবার রাতে একদল দুর্বৃত্ত পার্শ্ববর্তী ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার তাহেরহুদা গ্রামের মহিউদ্দীনের ছেলে ও পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট (সর্বহারা) পার্টির সদস্য চিহ্নিত সন্ত্রাসী আব্দুল কাদের জোয়ার্দারকে আলমডাঙ্গা উপজেলার তিওরবিলা গ্রামের হরিষখালির মাঠে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে।

এলাকাবাসীরা বুধবার দুপুরে থানার তিওরবিলা গ্রামের হরিষখালির মাঠে কাজ করা অবস্থায় কাদেরের লাশ দেখে পুলিশের কাছে খবর দেয়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কাদেরের লাশ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

আরো পড়ুন :  রাজধানীতে জেএমবির দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব

ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু থানার ওসি কাজী আয়ূবুর রহমান জানান, আব্দুল কাদের জোয়ার্দার পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট (সর্বহারা) পার্টির সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন থেকে হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ও আলমডাঙ্গা এলাকায় চাঁদাবাজি এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে ছিলেন। তার নামে হরিণাকুণ্ডু থানায় একটি হত্যা, অপহরণ ও চাঁদাবাজিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।