রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে নিহত ১১

প্রকাশিত

রাঙামটি প্রতিনিধি : টানা বর্ষণে পাহাড় ধসে রাঙামাটির নানিয়ারচরে ১১ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার (১১ জুন) দিবাগত রাত ও মঙ্গলবার (১২ জুন) সকালে নানিয়ারচর উপজেলার সাবেক্ষং ইউনিয়নের বড়পুলপাড়ায় চারজন, ঘিলাছড়ি ইউনিয়নের হাতিমারায় তিনজন ও শিয়াইল্লাপাড়া গ্রাম থেকে চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় এখনো আরও কয়েকজন মাটিচাপা পড়ে থাকতে পারেন। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন। এতে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন :  দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য গার্ডিয়ানের বর্ষসেরা সাকিব-মুশফিক

নিহতদের মধ্যে নয়জনের পরিচয় পাওয়া গেছে, তারা হলেন- নানিয়ারচরে বড়পুলপাড়ার একই পরিবারের তিনজন সুরেন্দ্র লাল চাকমা (৪৮), তার স্ত্রী রাজ্য দেবী চাকমা ও মেয়ে সোনালী চাকমা (০৯)। হাতিমারা গ্রামের রুমেল চাকমা (১২), রিতান চাকমা (২৫) ও রীতা চাকমা (১৭)। শিয়াইল্লাপাড়া গ্রামের ফুলদেবী চাকমা (৩২), ইতি চাকমা (২৪) ও শিশু অজ্ঞাত (২ মাস)।

আরো পড়ুন :  জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে কমিটি গঠন!

নানিয়ারচর থানার ওসি আবদুল লতিফ গণমাধ্যমকে জানান, নানিয়ারচরের তিন গ্রাম থেকে ১১ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এটা একটা ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয়।

পাহাড় ধসের পর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন। এতে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

এদিকে, এ ঘটনার পর থেকে উপজেলায় অধিকাংশ এলাকাই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছে।