খালেদা জিয়াকে ছাড়া দেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হতে পারে না: বিএনপি

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া দেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।
শনিবার বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদের আয়োজনে বর্তমান প্রেক্ষাপটে মানবাধিকার ও ভোটের অধিকার শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় কারাগারে রাখা হয়েছে। বিএনপি ছাড়া বাংলাদেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হতে পারে না। অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন সেইদিন হবে যেদিন খালেদা জিয়া কারাগার থেকে বের হয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।
অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদু বলেন, রাজনীতিতে ক্ষমতা বদলের দু’টি পথ- একটি নির্বাচন আর অপরটি গণঅভ্যুত্থান। যদি পরিস্কার ভাল নির্বাচনের ব্যবস্থা না হয় তাহলে গণঅভ্যুত্থান, আর ভালো নির্বাচনের ব্যবস্থা হলে নির্বাচনের অভ্যুত্থান দিয়েই জনগণ প্রমাণ করে দেবে কারা বাংলাদেশে জনপ্রিয়।
ওদিকে, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কর্মীসম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে তারপরে নির্বাচনের আলোচনা। শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে ভাসানী ভবনে ঢাকা মহানগর মহিলা দল কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। গণতান্ত্রিক পন্থায় এই দল তার রাজনীতি বাস্তবায়ন করতে চায়।
নজরুল ইসলাম মহিলা দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, মনে রাখতে হবে আমরা সবাই যেন আন্তরিকভাবে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই। শেখ হাসিনা তাকে মুক্তি দিতে চায় না। এই দুনিয়ায় তিনি সবচেয়ে বেশী ভয়পান খালেদা জিয়াকে। কারণ খালেদা জিয়া যত নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন প্রত্যেকটাতে বিজয়ী হয়েছেন।

Shares
আরো পড়ুন :  মান্নার প্রয়াণ দিবসে শিল্পী সমিতির স্মরণ সভা