৩ সিটিতেই নীলনকশার নগ্ন বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে : রিজভী

প্রকাশিত

সিক্স প্রতিবেদক : তিন সিটিতে সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো আলামত নেই। অধিকাংশ কেন্দ্র থেকে বিএনপির পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

সোমবার (৩০ জুলাই) রাজধানীর নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, প্রথম থেকে সরকারের নীলনকশার নির্বাচন নিয়ে আমরা যে অভিযোগগুলো করেছিলাম, তারই নগ্ন বহিঃপ্রকাশ তিন সিটিতেই ফুটতে শুরু করেছে।

আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের জন্যই সরকার তিন সিটির ভোট নিয়ে অনাচারে লিপ্ত হতে পেরেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরো পড়ুন :  যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার তেরো সন্তানকে বিছানার সাথে শিকল দিয়ে বেধে রেখেছিলো যে বাবা মা

রিজভী বলেন, নির্বাচন কমিশন উচিত-অনুচিতের এথিক্সের ধার ধারেনি বলেই নির্বিকার থাকছে এবং নৌকার প্রার্থীকে ভোট ডাকাতিতে উৎসাহ জুগিয়ে যাচ্ছে।

ইসি মূক ও বধির হয়ে গেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ক্ষমতাসীনদের অসংখ্য অনিয়ম ও নির্বাচন আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ কমিশন কানে তোলেনি। অবৈধ সরকার ও মেরুদণ্ডহীন নির্বাচন কমিশন অনিবার্য সম্বন্ধসূত্রে গ্রোথিত।

বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, বর্তমান সরকার অবৈধভাবে ক্ষমতায় থেকে বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। এরা কখনই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে দেবে না।

তিনি বলেন, কেন্দ্র দখল, বিরোধী দলের পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে তাড়িয়ে দেয়া, জালভোটে ব্যালট বাক্স পূর্ণ করার ‘হাসিনা মার্কা’ নির্বাচনকেই বাংলাদেশের নির্বাচনের মানদণ্ড করা হয়েছে।

আরো পড়ুন :  প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে কুপিয়ে আহত

‘শেখ হাসিনা যতদিন ক্ষমতায় থাকবেন, ততদিনই এই মানদণ্ড অনুযায়ী নির্বাচন হবে। ক্ষমতাসীনরা অহংকার আর উন্মত্ততায় বিচার বুদ্ধি হারিয়ে ক্ষমতার মায়ায় হিংস্র হয়ে নির্বাচনী বিজয় জোর করে ছিনিয়ে নিতে চাচ্ছে।’

অবৈধ সরকারকে খুশি করতে নির্বাচন কমিশন নিজেদের স্বাধীন ক্ষমতাকে নিজেরাই হরণ করেছে বলে মন্তব্য করেন রিজভী।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন এখন একটি প্যারাসাইট। বর্তমান নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিপক্ষ।