টঙ্গীতে বিভিন্ন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত

মৃণাল চৌধুরী সৈকত :
রাজধানী ঢাকার বিমানবন্দর সড়কের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় দেশের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে গাজীপুর মহানগরের টঙ্গীর বিভিন্ন স্কুল কলেজ শিক্ষার্থী বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টা থেকে টঙ্গীর কলেজ গেইট এলাকায় টঙ্গী সরকারি কলেজ, সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি এন্ড কলেজ, টঙ্গী পাইলট স্কুল এন্ড গালর্স কলেজের প্রায় দুই হাজার শিক্ষার্থী ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে জড়ো হয়ে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ শ্লোগান দিতে থাকে। ঘন্টা ব্যাপি শিক্ষার্থীদের এ অবস্থান কর্মসূচিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

আরো পড়ুন :  টাকার লোভ মানুষকে কোথায় নামায়!

পরে টঙ্গী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে শিক্ষার্থীদের অনুরোধ জানালে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নিয়ে পায়ে হেটে উত্তরার হাউজ বিল্ডিং এলাকার দিকে রওনা হয়। এ সময় সড়কের পাশ দিয়ে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার শ্রমিক কর্মচারি, সরকারী চাকুরেসহ অনেককে পায়ে হেটে নিজ নজি গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হতে দেখা গেছে। ফলে প্রায় ৩ ঘন্টা অত্র-অঞ্চলে যানবাহন চলাচল বিঘ্নিত হয় এবং চরম যানজটের সৃষ্টি হয়।

আরো পড়ুন :  রাজশাহী থেকে আটক তিন সদস্যকে নিয়ে গেল বিএসএফ

উল্লেখ্য, গত রোববার (২৯ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে এমইএস বাস স্ট্যান্ডে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০-১৫ জন শিক্ষার্থী। নিহতরা হলেন, শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র আব্দুল করিম রাজিব।
##