বলিউডি নায়িকা আর পরিচালকদের যত পরকীয়ার গল্প

প্রকাশিত

বলিউড জগতে সংসার নাকি কচুপাতার পানি! একটুতেই ভেঙে যায়। এই ধারণার বিপরীতে শাহরুখ-গৌরি, অক্ষয়-টুইঙ্কেল, অমিতাভ-জয়ার মতে কয়েকটি জুটি যুগের পর যুগ পার করে দিয়েছেন। আবার বলিউড পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করার সময় ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে অভিনেত্রীদের। কারও সরাসরি নাম জড়িয়েছে। কেউ বা সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছেন। অনেক ক্ষে্ত্রে বিবাহিত পরিচালকরা আবারও বিয়ে করেছেন। জেনে নিন এমন কিছু পরকীয়ার গল্প :

রোহিত শেঠীর সঙ্গে ২০০৫ সালে বিয়ে হয় মায়ার। বেশ ভালোই কাটছিল সংসার। ‘বোল বচ্চন’ ছবির শুটিংয়ের সময় থেকে অভিনেত্রী প্রাচী দেশাইয়ের সঙ্গে এই পরিচালকের সম্পর্কের কথা রটে যায়। যা কিছু ‘বটে’ ছিল!

স্ত্রী আরতির সঙ্গে বেশ ভালো সম্পর্ক ছিল অনুরাগ কাশ্যপের। ‘দেব ডি’ ছবির শুটিংয়ের সময় আলাপ হয় অভিনেত্রী কাল্কি কোয়েচলিনের। তখনই ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। ৬ বছরের বিবাহিত জীবন ভেঙে কাল্কিকে বিয়ে করেন অনুরাগ। চার বছর পর ভেঙে যায় সেই বিয়েও।

আরো পড়ুন :  টানা ২৪ মাস ধরে মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা!

পরিচালক বিক্রম ভাটের সঙ্গে বারবার নাম জড়িয়েছে ‘ড্রিম গার্ল’ সুস্মিতা সেনের। সাবেক মিস ইউনিভার্সের সঙ্গে নাকি লিভ-ইনও করতেন বিক্রম। যে কারণে বিচ্ছেদ হয়ে যায় ছোট্টবেলার প্রেমিকা-স্ত্রী অদিতির সঙ্গে। সুস্মিতার সঙ্গেও স্থায়ী হয়নি সম্পর্ক। তখন নাকি আত্মহত্যারও চেষ্টা করেন বিক্রম।

প্রথম স্ত্রী পায়েল খান্নার সঙ্গে দীর্ঘদিনের বিবাহিত জীবনে ছেদ পড়ে আদিত্য চোপড়ার। রানি মুখার্জির সঙ্গে সম্পর্কের কথাও প্রচার পেয়েছিল। কিন্তু স্বীকার করেননি পরিচালক আদিত্য চোপড়া। এড়িয়ে গিয়েছেন রানিও। পরবর্তীতে রানির সঙ্গে বিয়ের কথা স্বীকার করে নেন। তাদের সংসারে একমাত্র মেয়ে আদিরা।

স্ত্রী গীতার সঙ্গে সুন্দর সংসার ছিল পরিচালক রমেশ সিপ্পির। কিন্তু দূরদর্শনের একটি শোয়ের সময় গিয়ে আলাপ হয় অভিনেত্রী কিরণ জুনেজার সঙ্গে। দুজনের সম্পর্কের কথা রটতে সময় লাগেনি। প্রথমে তা প্রকাশ্যে আসেনি। পরে গীতার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় তার। কিরণকে বিয়ে করেন ‘শোলে’ পরিচালক।

আরো পড়ুন :  র‌্যাব কখনোই জঙ্গি দমনের লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হবে না : বেনজীর আহমেদ

কিরণ ভাটের সঙ্গে দিব্যি ছিলেন মহেশ। কিন্তু আলাপ হয় পারভিন বেবির সঙ্গে। সম্পর্ক নিয়ে জল গড়ায় অনেক দূর। যদিও সেই সম্পর্ক স্থায়ী হয়নি। পারভিনের সঙ্গে নাকি সম্পর্ক ভাঙেনও মহেশই

পরিচালক গুরু দত্তের স্ত্রী ছিলেন কিংবদন্তি গায়িকা গীতা দত্ত। কিন্তু নায়িকা ওয়াহিদা রহমানের প্রেমেই নাকি মজেছিলেন পরিচালক। প্রেম পূর্ণতা না পাওয়ার কারণে এক সময় অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন গুরু দত্ত।

রাজ কাপুরের সঙ্গে বিয়ে হয় কৃষ্ণা মালহোত্রার। সেটি ছিল প্রেমের বিয়ে। পাশাপাশি বলিউডে দীর্ঘদিনের গুঞ্জন ছিল যে, সুপারস্টার নায়িকা নার্গিসের সঙ্গে নাকি সিরিয়াসলি প্রেম করেছেন রাজ।