আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের অতর্কিত হামলা ও গুলিতে দুই হিজড়াসহ আহত চারজন

প্রকাশিত

সাভার প্রতিনিধিঃ সাভারের আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তদের অতর্কিত হামলা ও গুলিতে দুই হিজড়াসহ চারজন আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে টঙ্গী-আশুলিয়া-ইপিজেড সড়কের তুরাগ এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন, গুরু মা আব্দুল, শিখা, বড় মা রশিদা ও গাড়িচালক নুরুন্নবী। গুলিবিদ্ধদের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের সবার অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী তৃতীয় লিঙ্গের আখি জানান, ‘সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একটি প্রাইভেটকারে করে কয়েকজন টঙ্গি যাচ্ছিলাম। আশুলিয়ার তুরাগ এলাকায় পৌঁছালে সাদা রংয়ের একটি প্রাইভেটকার আমাদের প্রাইভেটকারটিকে ধাক্কা দেয়। প্রথমে আমরা মনে করি সড়ক এটি দুর্ঘটনা। পরে দেখি তিনজন দুর্বৃত্ত গাড়ি থেকে বের হয়ে বাজারের ব্যাগ থেকে পিস্তল বের করে এলোপাথাড়ি গুলি ছোড়ে। আরও দুইজন গাড়ির ভেতরে বসা ছিল। আমি পেছনে থাকায় কোনো রকমে বেঁচে যাই।’

আরো পড়ুন :  আবার ‘কালো বিড়ালের’ ছায়া

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকারীদের সর্দার মিষ্টি বলেন, ‘আমরা আশুলিয়ার জামগড়া মোল্লাবাজার এলাকায় থাকি। সকালে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে টঙ্গিতে একটি মিটিংয়ে যোগ দিতে যাচ্ছিলাম। সাড়ে ১০টার দিকে দুর্বৃত্তরা আমাদের ওপর হামলা চালালে চালকসহ চারজন গুলিবিদ্ধ হয়।’

এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারের (ওটি) ইনচার্জ নাছির উদ্দিন বলেন, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিনজন আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এদের মধ্যে শিখা ও রাশিদার  পেটে ও বুকে দুটি গুলি লেগেছে। চালক নুরুন্নবীর বা হাতে একটি গুলি ও আরও দুটি গুলি পেটে ও বুকে লেগেছে।

আরো পড়ুন :  নিকলীতে স্বাস্থ্যসেবা,বাল্যবিবাহ,মাতৃমৃত্যু রোধ বিষয়ক তিনদিন ব্যাপী প্রশিক্ষণঃ

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বলেন, গুলিবিদ্ধদের উদ্ধার করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসীরা তাদের গুলি করতে পারে বলে  প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

26Shares