প্রধানমন্ত্রী নেতৃত্বে বাংলাদেশ সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: তথ্য প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট তারানা হালিম এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কথা দিলে কথা রাখে। তিনি বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রুপান্তরিত করেছেন। সর্বক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আগে মাতৃত্বকালীন ছুটি ছিলো চার মাস, এখন তা বর্ধিত হয়ে ছয় মাস হয়েছে। ৩০ রকমের ঔষধ আমাদের দেশে বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে। ২০০৫-০৬ আমাদের বাজেট ছিলো ৬১ হাজার ৫৭ কোটি, ২০১৮ তে তা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ২৬৬ কোটি টাকা। এজিপি বাজেট ছিলো ২০০৫-০৬ এ মাত্র ১৬ হাজার কোটি টাকা। বর্তমানে তা ১ লক্ষ ৬৪ হাজার কোটি টাকা হয়েছে। এভাবে সর্বক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।
রবিবার দুপুরে টাঙ্গাইলে শহীদ স্মৃতি পৌরউদ্যানে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, কর্ণফুলি ট্রানেলসহ বিভিন্ন প্রকল্প এ সরকার করেছে। বিগত ১০ বছরে সরকার বয়স্কভাতা দিয়েছে ১৪ হাজার ১৯৯ কোটি টাকা, বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্ত ভাতা দিয়েছে ৫ হাজার ২৬৮ কোটি টাকা, অস্বচ্ছল ও প্রতিবন্ধি ভাতা দিয়েছে ৩ হাজার ২৬৭ কোটি টাকা, শিক্ষা উপবৃত্তি দিয়েছে ৪ হাজার ৬১৬ কোটি টাকা, প্রতিবন্ধি শিক্ষা উপবৃত্তি দিয়েছে ১০ বছরে ১ হাজার ১৭১ কোটি টাকা, এতিমদের দিয়েছে ৬৬৫ কোটি টাকা, বর্তমান সরকার ২০১৮ সালে ২ কোটি ৫০ লক্ষ ছাত্রছাত্রী মধ্যে ১০ কোটি ৭০ লক্ষ বই বিতরণ করেছে।
তিনি আরো বলেন, ১৫টি কমিউনিটি বেতার ও ৪৪ টি টিভি চ্যানেল সম্প্রচারসহ ঢাকা হতে ২২১টি পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে। শিক্ষাক্ষেত্রে শিক্ষাখাত ছিলো ২০০৯ এ মাত্র ৪৪ শতাংশ, বর্তমানে ৭৩ শতাংশ। ২০০৯ থেকে এ পর্যন্ত ১২ হাজার ৪৯২টি শিক্ষাকার্যক্রমের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। ৯ বছরে প্রাথমিক ও প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে মোট ১ লক্ষ ৯ হাজার ৫৭৮ জন শিক্ষক নিয়োগ ও ১ লক্ষ ৩ হাজার শিক্ষকের চাকুরী জাতীয়করণ করা হয়েছে। ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক স্কুল সরকারি করণ করা হয়েছে। এ বছর শিক্ষাক্ষেত্রে ৫৩ হাজার ৫০৪ কোটি বাজেট বরাদ্ধ হয়েছে, যা মোট বাজেটের ১২ শতাংশ। প্রতিটি মানুষের প্রতি বর্তমান সরকারের সহানুভুতি রয়েছে।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. আব্দুর রউফ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব মো. মনছুর আলী, জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, দেলদুয়ার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লায়ন এম শিবলী সাদিক প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাজল সরকার ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন।
Shares
আরো পড়ুন :  আ.লীগে খুলনায় খালেক, গাজীপুরে জাহাঙ্গীর