পাবনার চাটমোহরে কুকুরের উপদ্রব, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি: পাবনার চাটমোহরের পৌর শহরের বিদ্যালয়ের সামনে, হাটবাজার ও পাড়া-মহল্লায় কুকুরের উপদ্রব বেড়ে গেছে। পৌর শহরের মহল্লায় ছাগল, মুরগী ও স্কুলগামী শিশুদের কুকুর ধাওয়া করছে অবিচারে। এ কারণে আতংকের মধ্যে আছেন শহরের বাসিন্দারা। শহরবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, চাটমোহর পাইলট সকাররি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে, জার্দিস মোড়, চাটমোহর প্রেসক্লাবের সামনে, নতুন বাজার, হাড়ান মোড়, ভাদুনগর, বালুচর খেলার মাঠ, জিরো পয়েন্ট, চাটমোহর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় গেটের সামনে, পাঠান পাড়া, হাসপাতাল গেট, বাসস্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন এলাকায় কুকুরের উৎপাত সবচেয়ে বেশি। গত কয়েকদিন যাবৎ দেখা যাচ্ছে, চাটমোহর পৌরসভার সামনে ও নতুন বাজার খেয়া ঘাটে কুকুরের দল ঘোরাঘুরি করছে। কুকুরের আতঙ্কে শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে ভয় পাচ্ছে। পৌর শহরের মধ্যে ১২ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ও পথচারীরা স্বাভাবিকভাবে চলালচ করতে পাবছে না। নতুন বাজারের মাংস ব্যবসায়ী আব্দুল গণি বলেন, মাংসের দোকানের সামনে সারাক্ষণ ১০-১২ টি কুকুর আনাগোনা করে। যেকোনো সময় কামড়াতে পারে-এ আশঙ্কা নিয়ে আমাদের মাংস কেনাবেচা করতে হচ্ছে। চাটমোহর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী মোছা. শাহানাজ পারভিন বলে, বিদ্যালয়ের ভেতরেই সব সময় ৫-৬ টি কুকুর ঘোরাঘুরি করে। কুকুরের জন্য খেলাধুলা করতেও ভয় লাগে, চাটমোহর মহিলা ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী মোছা. সুমাইয়া বলে, কলেজের ভেতর ও গেটে কুকুরের আনাগোনাতে কলেজে ঢুকতে ভয় লাগে। এ বিষয়ে পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল’র মুঠোফোনে ফোন দিয়ে কথা বললে তিনি বললে, পৌর শহরে কুকুরের উপদ্রব বেড়েছে এটা সত্য। কিন্তু পরিবেশবাদীদের রিটের জন্য আমরা কুকুর নিধন করতে পারছি না। এ কারণে পৌরবাসীকে নিজেরাই সতর্ক হয়ে চলতে হবে।