বাংলাদেশে ২ হাজার মেয়ের মুখ খোলা উচিত : তসলিমা

প্রকাশিত

অনলাইন- 

যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে চলছে #মিটু আন্দোলন। সোশ্যাল সাইটে নিজেদের ভয়ানক অতীত নিয়ে মুখ খুলছেন একের পর এক নারী। এর ফলে খুলে যাচ্ছে ‘ভালোমানুষ’ মুখোশধারী অনেক পুরুষের মুখোশ। আবার অনেক নারী এর সুযোগ নিয়ে ফাঁসিয়ে দিচ্ছেন অপছন্দের কাউকে। এই #মিটু আন্দোলন নিয়ে পক্ষ-বিপক্ষে অনেক কথাবার্তা চলছে। এসব অভিযোগের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে শুরু হয়েছে তদন্তও।

প্রখ্যাত নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিন শুরু থেকেই #মিটু আন্দোলনের সমর্থন দিয়ে আসছেন। তিনি নিজেই তার জীবনের অনেক নিপীড়নের গল্প প্রকাশ করেছেন বইয়ের পাতায়। এবার তিনি মুখ খুললেন বাংলাদেশে #মিটু আন্দোলন নিয়ে। এখন পর্যন্ত দুজন নারী সোশ্যাল সাইটে ‘যৌন হয়রানির শিকার হওয়া’র দাবি করে সোশ্যাল সাইটে মুখ খুলেছেন। তসলিমার মতে, এই প্রতিবাদীর সংখ্যা আরও বেশি হওয়া উচিত। 

আরো পড়ুন :  মাহমুদুর রহমানের ওপর হামলা অনাকাঙ্ক্ষিত: ওবায়দুল কাদের

নিজের ভেরিফায়েড ফেসুক অ্যাকাউন্টে তসলিমা লিখেছেন, ‘বিশ্বজোড়া #মিটু আন্দোলন চলছে। বাংলাদেশের মাত্র দুটি মেয়ে মুখ খুলেছে। দুটি নয়, দুই হাজার মেয়েকে মুখ খুলতে হবে। মেয়ে দুটি বিদেশে থাকে। বিদেশ থেকে নয়, বাংলাদেশ থেকে বলতে হবে কোন নামি দামি ভদ্রলোক তাদের যৌন হেনস্থা করেছে। বলেছে বলে কাউকে নিশ্চয়ই তসলিমার মতো নিগৃহীত হতে হবে না। যদি হতে হয় তাহলে বুঝতে হবে সমাজ সামান্যও বদলায়নি। দুইশ বছর আগে যা ছিল, দুইদশক আগে যা ছিল, এখনও তাই আছে।’

10Shares