এনবিআর ১১ উদ্ভাবনকে প্রাধান্য দিয়ে শোকেসিং করবে

প্রকাশিত

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক :আয়কর, কাস্টমস, মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট/মূসক) ও সঞ্চয় অধিদপ্তরের ১১টি উদ্ভাবনকে সামনে নিয়ে শোকেসিং অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) উদ্ভাবনীমূলক কাজগুলোর মধ্যে রয়েছে অডিট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, ভ্যাট ইন মোবাইল অ্যাপস ও এক্সেল রিটার্ন প্রসেসিং সিস্টেম ইত্যাদি।

এনবিআরের আওতাধীন বিভিন্ন দপ্তর, জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের উদ্ভাবনী উদ্যোগের শোকেসিং অনুষ্ঠান রোববার রাজধানীর কাকরাইলে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মো: আবুল কালাম আজাদ। সভাপতিত্ব করবেন এনবিআর চেয়ারম্যান মো: মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি।

আরো পড়ুন :  'মি টু' ক্যাম্পেইন: যৌন হয়রানির তথ্য প্রকাশে কেন এগিয়ে আসছে না বাংলাদেশের মেয়েরা?

শোকেসিং এর বিষয়ে জানতে চাইলে এনবিআর সদস্য (করনীতি) কানন কুমার রায় বলেন, ‘এনবিআরের যে সকল অফিসার নিজ উদ্যোগে উদ্ভাবনীমূলক বিষয় নিয়ে কাজ করেন, যারা করদাতা বা গ্রহক পর্যায়ে সেবার উদ্দেশ্যে নতুন নতুন আইডিয়া উদ্ভাবন করেন তা মানুষকে জানানো বা মানুষের মধ্যে পৌঁছে দেওয়াটাকে বলা হয় শোকেসিং। সরকার চাইছে সরকারি যে সকল বিভাগ নতুন নতুন বিষয় উদ্ভাবন করেছে তা যাতে শোকেসিং করা হয়। মানুষ দেখুক তারা কি কি বিষয় উদ্ভাবন করেছে।’

আরো পড়ুন :  সিও সংস্থার আয়োজনে ঝিনাইদহে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন ও র‌্যালী অনুষ্ঠিত

রোববার আয়োজিত অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘৪ নভেম্বর সকালে অনুষ্ঠানে এনবিআর তুলনামূলকভাবে বেশি কার্যকর ও ভালো এমন আইডিয়া উপস্থাপন করবে। যেখানে আয়কর, কাস্টমস, ভ্যাট ও সঞ্চয় দপ্তরের ১১টি নতুন নতুন উদ্ভাবনকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।’

5Shares