ভারত-চীনের দাপট জুনিয়র টেনিসের কোয়ার্টার ফাইনালেও

প্রকাশিত

ক্রীড়া প্রতিবেদক :‘ওয়ালটন ৩২তম বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক জুনিয়র টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৮’ এর কোয়ার্টার ফাইনালের খেলা আজ বুধবার রমনাস্থ জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় রাউন্ডের মতো কোয়ার্টার ফাইনালেও বালক ও বালিকা এককে ভারত ও চীনের খেলোয়াড়রা আধিপত্য দেখিয়েছে।

বালক একককের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের আরিয়ান জাবেরি ২-৬, ৬-২, ৬-১ গেমে স্বদেশী ইশান সেথিকে পরাজতি করে সেমিফাইনালে ওঠে। দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের উদয়ভির সিং ৬-২, ৭-৫ গেমে স্বদেশী ধ্রুব তানগ্রিরিকে পরাজিত করে শেষ চারের টিকিট পায়। তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কুশান শাহ ৬-০, ৬-৩ গেমে চাইনিজ তাইপের হিয়ান জু উ-কে পরাজিত করে সেমিফাইনালে ওঠে। আর চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনালে চীনের ওয়েনমাও লি ৬-২, ৬-২ গেমে ভারতের ফাইজ নাসিয়ামকে পরাজিত করে শেষ চার নিশ্চিত করে।

এদিকে বালিকা এককের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে চীনের মি তিয়ানমি ৬-১, ৬-৪ গেমে আমেরিকার টপসীড অনন্যা কথকথাকে পরাজিত করে সেমিফাইনালে ওঠে। দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে চায়নার সান, ইফান ৬-৩, ০-৬, ৬-১ গেমে ভারতের যাফর রায়নাকে পরাজিত করে শেষ চারে পা রাখে। তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের ইশিতা শিং ৬-০, ৬-২ গেমে স্বদেশী দ্বীপশিখা শ্রীরামকে পরাজিত করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। আর চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনালে চীনের জো জিয়াওইয়ান ৬-৩, ৬-২ গেমে স্বদেশী জিয়াং জিযুনকে পরাজিত করে সেমিফাইনালে ওঠে।

আরো পড়ুন :  ঘৃণা-স্তম্ভ নির্মাণের পরিকল্পনা রাজাকারদের বিরুদ্ধে

এবারের এই প্রতিযোগিতার মূলপর্বে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ আমেরিকা, চীন, চাইনিজ তাইপে, জার্মানি, ভারত, কোরিয়া, মালয়েশিয়া, নেপাল ও শ্রীলংকা থেকে ৩২জন বালক ও ৩২ জন বালিকা খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করছে। বাছাইপর্ব ও মূলপর্ব সহ মোট ৪১ জন বালক ও ৩৪ জন বালিকা; সর্বমোট ৭৫ জন খেলোয়াড় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছে। প্রতিযোগিতার নক-আউট পদ্ধতির খেলায় বালক একক, বালিকা একক, বালক দ্বৈত ও বালিকা দ্বৈত মোট ৪টি ইভেন্ট অন্তর্ভূক্ত থাকবে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে এককের খেলা এবং অপরাহ্নে দ্বৈতের খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আরো পড়ুন :  সকলকে মাতৃ মৃত্যুহার রোধে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে : স্পিকার

প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ দলের ২২ জন বালক ও ৬ জন বালিকা খেলোয়াড় অংশগ্রহন করেছে।  বাংলাদেশ থেকে বালক বিভাগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে জুয়েল রানা, ফারুক হোসেন, স্বাধীন হোসেন, রাকিব হোসেন, অর্ণব সাহা, ফরিদুর রেজা, মেহেদী হাসান, জুবিন ওমর, মো. সাকিব, তামিম বিন জাহিদ, পাসি মো. সোহেল, নুর আলম, রনজিৎ সরকার, আজিজুল হাকিম আবির, ইয়ামান আহমেদ জিম ও ইমন ইসলাম। বাংলাদেশ থেকে বালিকা বিভাগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে জেরিন সুলতানা জলি, রিনভি আক্তার তৃপ্তি, রাইনা, লামি সুচনা ফাবিহা, মাশফিয়া আফরিন ও সুষ্মিতা সেন। বাংলাদেশের কেউ বালক কিংবা বালিকা এককের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পারেনি।

Shares