সদিচ্ছা থাকলে নির্বাচনের একদিন আগেও সমঝোতা সম্ভব-আসিফ নজরুল

প্রকাশিত

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেছেন, বিবাদমান দুই পক্ষের মধ্যে সমঝোতার হওয়ার ক্ষেত্রে শক্তির ভারসাম্য বা ব্যালেন্স অব পাওয়ার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিক। এই নীতি অনুসরণ করে অতীতে অনেক জাতীয় এবং আঞ্চলিক বা আন্তর্জাতিক বিবাদের মিটমাট হয়েছে। কারন, সংলাপ ফলপ্রসূ হতে হলে উভয়পক্ষকে উইন উইন সিচুয়েশনে থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে উভয়ের ক্ষমতাও থাকতে হবে সমানে সমান। কিন্তু আমাদের দেশের রাজনীতিতে গত এক দশক থেকে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির মধ্যে শক্তির ভারসাম্যহীনতা রয়েছে। এমন অবস্থায় উভয় পক্ষ সংলাপ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিলেও তা ফলপ্রসূ হবে বলে মনে হচ্ছে না। তবে সরকারপ্রধান যদি একান্ত আন্তরিকতা দেখিয়ে সংলাপ অর্থবহ করেন, তবে তা ভিন্ন বিষয়।
অধ্যাপক আসিফ নজরুলের মতে, ‘বিরোধীদলকে সমান সুযোগ দিতে হলে এবং জনগণকে যদি আস্থা দেয়া হয় সুষ্ঠু নির্বাচনের, সে ক্ষেত্রে সরকারের যথেষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করার সুযোগ রয়েছে। এখানে আইনের বা সংবিধানের বাঁধা রয়েছে, এইসব অজুহাত দেখিয়ে লাভ নেই। সংবিধান পরিবর্তনের শক্তি ও ক্ষমতা সরকারের রয়েছে। সংবিধানের মধ্যেই সংবিধান পরিবর্তনের অনেক সুযোগ রয়েছে।’ তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় বিষয় সরকারের সদিচ্ছা। এটা থাকলে নির্বাচনের একদিন আগেও সমঝোতা সম্ভব।

Shares
আরো পড়ুন :  ব্রেকআপ যেভাবে মন ও শরীরের ক্ষতি করে