খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতির পর এখন স্থিতিশীল রয়েছেঃ হারুন

প্রকাশিত

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘ ১ মাসের বেশি সময় চিকিৎসা নেয়ার পর তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল (বিএসএমএমইউ) পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আবদুল্লাহ আল হারুন। গতকাল বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।
বিএসএমএমইউ পরিচালক বলেন, খালেদা জিয়া যেসব শারীরিক সমস্যা নিয়ে এসেছিলেন, আমরা চেষ্টা করেছি তাকে সবগুলো চিকিৎসা দিতে। বিভিন্ন ইনভেস্টিগেশনের রিপোর্টও আমরা ভালো পেয়েছি। বর্তমানে ওনার অবস্থা স্থিতিশীল আছে। ওনার অসুস্থতায় যে সকল পরীক্ষা করা হয়েছিল সেগুলো বেশ ভালো পাওয়া গেছে। এ ছাড়া সিটি স্ক্যান রিপোর্টেও অস্বাভাবিক কিছু পাওয়া যায়নি। আমাদের মেডিকেল বোর্ড যদি মনে করা তার ফিজিও থেরাপি দেয়া প্রয়োজন তখন তারা তা দেবেন।
এর আগে বেলা ১১টা ২০ মিনিটে খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউ থেকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ১১টা ৩৫ মিনিটের দিকে খালেদা জিয়াকে বহনকারী গাড়িটি কারাগারে ঢোকে। গত ৪ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তি ও চিকিৎসাসেবা শুরু করতে পাঁচ সদস্যের একটি বোর্ড গঠন করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। পরে ৬ অক্টোবর থেকে বিএসএমএমইউয়ের কেবিন ব্লকের ৬১২ নম্বর কক্ষে চিকিৎসাধীন ছিলেন খালেদা জিয়া।
উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্র“য়ারি পাঁচ বছর সশ্রম কারাদ পান বিএনপি চেয়ারপারসন। ওইদিনই নাজিমুদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয় তাকে। সর্বশেষ গত ৩০ অক্টোবর এ মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা ৫ থেকে বাড়িয়ে ১০ বছর করেন হাইকোর্ট।

Shares
আরো পড়ুন :  রাজধানীর বাড্ডায় হত্যা করে পালানোর সময় আটক যুবক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত