ঢাকা-২০ ধামরাইয়ে এক ইউনিয়ন থেকে তিন দলের ২১ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

প্রকাশিত

ধামরাই (ঢাকা) সংবাদদাতা : ঢাকা-২০ ধামরাই আসনের জন্য আওয়ামী লীগ থেকে ১৩ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এরমধ্যে কুশুরা ইউনিয়নেই চাচা-ভাতিজিসহ রয়েছে ৬ জন।
মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারি  ৬ জনের বাড়ি দেড় থেকে দুই কিলোমিটারের মধ্যে সীমাবদ্ধ। এ ছাড়া বিএনপি থেকে ৫ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।
মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছ থেকে জানা গেছে, উপজেলার কুশুরা ইউনিয়ন মূলত আওয়ামী লীগের ঘাটি হিসেবে পরিচিত। এ ইউনিয়নের  ডালিপাড়ার মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরু-উজ্জামানের বাড়ী থেকে মুক্তিযুদ্ধের সূচনা শুরু হয়। এ ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের  ৬ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তারা প্রত্যেকেই দলীয় গুরুত্বপূর্ণ পদেই আছেন। এদের  মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান এমপি নরসিংহপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ এম এ মালেক, , ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বায়রার সভাপতি এবং  সাবেক এমপি বৈন্যা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ বেনজীর আহমদ। উপজেলার সর্বকনিষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দুই বারের সিআইপি কার্ডপ্রাপ্ত  ডালিপাড়া গ্রামের আহম্মদ আল জামান আমান,আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহসম্পাদক শাসন গ্রামের মনোয়ার হোসেন চুনকু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য টোপেরবাড়ি  গ্রামের ডাক্তার মোখলেছ উজ জামান হিরু ও কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদকও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান একই গ্রামের এ্যাডভোকেট সোহানা জেসমিন মুক্তা। এরমধ্যে হিরু ও মুক্তা আপন চাচা-ভাতিজি। হিরু ও আহমদ আল জামান আমান আপন মামাতো-ফুফাতো ভাই। ঢাকা  জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মেঘনা ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাজাপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল আলিম খান সেলিম, পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ গোলাম কবির মোল্লা।এছাড়া মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ঢাকা  জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বাইশাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মিজানুর রহমান মিজান , উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সাখাওয়াত হোসেন সাকু, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আশিষ কুমার মজুমদার ,আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ও সহকারী এ্যাটর্নি জেনারেল এ্যাডভোকেট মোহাম্মাদ আলী ও বাংলাদেশ এ্যগ্রো ফিড ইনগ্রেডিয়েন্স ইম্পোর্টার এ্যান্ড ট্রেডার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ফোরাম কেন্দ্রীয় পরিষদের সহসভাপতি সুধীর চৌধুরী। মনোনয়ন বোর্ডে পছন্দীয় প্রার্থীকে সমর্থন জানানোর জন্য ডেমিপ্রার্থী হিসেবে অনেকেই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে কয়েকটি সূত্রে জানা গেছে।
মূলত বর্তমান এমপি ও সাবেক এমপির মধ্যে মনোনয়ন প্রাপ্তিতে মূল লড়াই হবে বলে দলীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া বিএনপি থেকে গতকাল পর্যন্ত  ৫ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গেছে। এরমধ্যে সাবেক এমপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের  উপদেষ্টা ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান, সংরক্ষিত আসনের সাবেক এমপি জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক সুলতানা আহম্মেদ,উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ  তমিজ উদ্দিন, ঢাকা জেলা যুবদলের সাধারন সম্পাদক ইয়াছিন ফেরদৌস মুরাদ ও  ব্যারিস্টার এইচ এম সানজিদ সিদ্দিকী। সানজিদ সিদ্দিকী রাজনৈতিক মাঠে বিচরন নেই।এদিকে সাবেক এমপিও বিএনপি চেয়ারপারসনের  উপদেষ্টা ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য  ও  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ তমিজ উদ্দিন এই দুইজন থেকে যেকোন একজন প্রার্থী নির্বাচনে মুলপ্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারে বলে বেশীভাগ এলাকাবাসী মনে করছেন। তবে কাকে দিবে দল সেই অপেক্ষা করতে হবে।
 জাতীয় পার্টি(এরশাদ) থেকে মনোয়নপত্র করেছেন দুইবারের সাবেক এমপি ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শিল্পপতি খান মুহাম্মদ ই¯্রাফিল খোকন, কেন্দ্রীয় যুবসংহতির  নেতা দেলোয়ার হোসেন খান মিলন ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুল মালেক।
Shares
আরো পড়ুন :  বাংলাদেশি পোশাক ব্যবসায়ীদের ভারতে বিনিয়োগের আহ্বান