ধর্ষণের জন্য শাস্তির বিধান

প্রকাশিত

স্বঘোষিত সোমালিল্যান্ড প্রজাতন্ত্র এই প্রথমবারের মতো ধর্ষণবিরোধী আইন পাস করেছে।

গতকাল সোমবার বিবিসির খবরে জানানো হয়, এর আগে দেশটিতে ধর্ষণের শিকার নারীকে বিয়ে করার জন্য ধর্ষণকারীকে বাধ্য করা হতো। সামাজিক লজ্জা ও হয়রানি থেকে ধর্ষণের শিকার নারীকে রক্ষা করতে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

আইন অনুসারে, অপরাধের জন্য ধর্ষককে কমপক্ষে ৩০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

আরো পড়ুন :  হাসপাতালে সাংসদ আমানুরের আয়েশি জীবন

১৯৯১ সালে সোমালিয়া থেকে নিজেদের স্বাধীন ঘোষণা করে সোমালিল্যান্ড। তবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বতন্ত্র দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পায়নি সোমালিল্যান্ড। সোমালিয়ায় এখনো ধর্ষণের বিরুদ্ধে কোনো আইন নেই।

সোমালিল্যান্ডের পার্লামেন্টের স্পিকার বাশে মোহাম্মেদ ফারাহ বিবিসিকে বলেন, ধর্ষণ ও গণধর্ষণের মতো অপরাধের ঘটনা বাড়ছে। তিনি আশা করেন, নতুন আইন হলে ধর্ষণ বন্ধ করা সম্ভব হবে। এই আইনের লক্ষ্য হলো ধর্ষণকে বন্ধ করা।

আরো পড়ুন :  আফগানিস্তানে শিখদের ওপর আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১৯

কয়েক বছর ধরে শিশু ও নারী অধিকারকর্মীদের দীর্ঘদিনের আন্দোলনের পর নতুন এই আইন পাস হলো।

উইমেন্স এজেন্ডা ফোরামের ফয়সা আলী ইউসুফ বিবিসিকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা এ ধরনের আইন প্রণয়নের জন্য অপেক্ষা করছেন।