গাজীপুরে শ্রমিকদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ

প্রকাশিত

গাজীপুর অফিস-

বেতন বাড়ানোর দাবিতে গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর এলাকায় এনএজেড কম্পোজিট নামের একটি তৈরি পোশাক কারখানায় শ্রমিক বিক্ষোভের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানা এলাকায় থাকা দুটি মোটরসাইকেল ও একটি কাভার্ডভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাঠিচার্জ ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আন্দোলনরত শ্রমিকরা জানান, সরকার ঘোষিত হারে বেতন ভাতা প্রদানের দাবিতে বেশ কয়েকদিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল কারখানার ছয় হাজার শ্রমিক। কিন্তু কর্তৃপক্ষ তাদের দাবি না মেনে আগের বেতন ভাতাই দিচ্ছিল। ফলে শ্রমিকদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়।

আরো পড়ুন :  অ্যান্ড্রয়েড ফোনে পর্নো দেখায় ঝুঁকি

Gazipur

রোববার সকালে বেতন বাড়ানোর দাবিতে কারখানায় কর্মবিরতি করে কারখানার সামনে বিক্ষোভ শুরু করে শ্রমিকরা। এক পর্যায়ে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ টিয়ার সেল নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশের লাঠিচার্জে ১০ জন শ্রমিক আহত হন।

আরো পড়ুন :  তুরস্ক প্রস্তুত মানবিজের নিয়ন্ত্রণ নিতে : এরদোগান

গাজীপুর শিল্প পুলিশের ওসি হাবিবুর রহমান জানান, এনএজেডসহ দুটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা বেতন বাড়ানোর দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা কারখানার সামনে রাখা দুটি মোটরসাইকেল, কাভার্ডভ্যানে অগ্নিসংযোগ ও লেগুনা ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

19Shares