হামলায় নিহতদের বেশিরভাগই আ.লীগের

প্রকাশিত

ডেস্ক নিউজঃ রাজনীতিতে দৃশ্যত আওয়ামী লীগের একাধিপত্যের মধ্যেও প্রতিপক্ষের হামলায় প্রাণ হারানো বেশিরভাগই ক্ষমতাসীন দলেরই সদস্য।
একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর সহিংসতায় অন্তত ৩৪ জনের মৃত্যুর তথ্য এসেছে গণমাধ্যমগুলোতে। এদের মধ্যে ক্ষমতাসীন দল এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী আছেন ১৯ জন। চার জন বিএনপির, ১০ জন সাধারণ ভোটার এবং একজন আনসার সদস্য।

বৃহস্পতিবার রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলন করে এই পরিসংখ্যান তুলে ধরে করেন মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্র- আসক।

সংস্থাটির তথ্য অনুযায়ী গত ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণার পর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৪৭০টি সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে।
প্রতি বছর জাতীয় নির্বাচনের আগে পরে নানা সহিংসতা হয়। এমন একটি ভোটও যায়নি যেখানে কারো মৃত্যু হয়নি। অতীতের অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে, এসব ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারগুলো সেভাবে বিচারও পায় না।

এবার যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে, তার মধ্যে বেশিরভাগ নিহত হয়েছেন ভোটের দিন। এই সংখ্যাটি ১৯ জনের মতো। আর প্রচার চলাকালে ১০ জনেরও বেশি, ভোটের আগের রাতেও অন্তত তিন জনের মৃত্যুর তথ্য আছে।