সরাইলে বহুল আলোচিত স্বর্ন ছিনতাই এর ঘটনায় আরো একজন আটক

প্রকাশিত

সরাইল, প্রতিনিধি – ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলায় বহুল আলোচিত স্বর্ণলংকার ছিনতাই এর ঘটনায় আরো একজনকে আটক করে সরাইল থানা পুলিশ। শনিবার স্বর্ণ ছিনতাই  এর সাথে জড়িত উপজেলার শাহবাজপুর ( বন্দেরহাটি)এলাকার রবি মিয়ার ছেলে মোঃ সোহান(৩০) কে নিজ বাড়ি থেকে  আটক করে সরাইল থানা পুলিশ। আটক সোহান স্বর্ণ  ছিনতাই এর সাথে জড়িত ছিলেন বলে জানায় পুলিশকে। স্বর্ণ ছিনতাই এর ঘটনায়  নিত্য তলা পাত্র, ও শাহীন নামে আরো  দুইজন এখনো পলাতক রয়েছেন বলে জানান সরাইল থানা অফিসার ইনচার্জ মফিজ উদ্দিন ভুইয়া। তাদেরকে গ্রেপ্তারের তৎপরতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য গত বছর নভেম্বরে সরাইল বাজারের স্বর্ণ ব্যাবসায়ী তপন বনিক ও তার ছেলে বিষ্ণু বণিক প্রতিদিনের ন্যায় দোকান বন্ধ করে ব্যাগ ভর্তি  স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে  বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথিমধ্যে আগে থেকেই উৎপেতে থাকা ছিনতাই কারীরা মোটরবাইক নিয়ে তাদের রিক্সার গতিরোধ করে ব্যাগ ভর্তি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে স্থান ত্যাগ করে।  এসময় তাদের সাথে ছিনতাই কারীদের অনেক্ষণ ধস্তাধস্তি হয়।একপর্যায়ে তপন বনিক ও তার ছেলে বিষ্ণু বণিক কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে এবং চোখে মুখে মরিচের গুরা ছিটিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় এক ছিনতাই কারীর সাথে ধস্তাধস্তি হয় রিক্সা চালকের, পরে রিক্সা চালক এক ছিনতাই কারীকে জাপটে ধরে সে তার গায়ের গেঞ্জি রেখে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। গেঞ্জির সূত্র ধরেই দুই ছিনতাই কারীকে  আটক করে থানা পুলিশ। পরে আটক দুই ছিনতাইকারী সাইদুল হক ও ইমরান খানের দেয়া তথ্য মতে  নগদ ৮ লক্ষ টাকা এবং ১৮০ ভরি স্বর্ণালঙ্কারের মধ্যে  ১৪১ ভরি ১২আনা স্বর্নলংকার উদ্ধার করে সরাইল বনিক পাড়ার নিত্য তলাপাত্রের বাড়ি থেকে। এই ঘটনায় সাইদুল হক ও ইমরান খান কে জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। পরে আইনের ফাঁক ফোকরে জামিনে বেড়িয়ে আসে তারা। আর ঘটনার পর থেকে নিত্য তলাপাত্র পাশের দেশ ভারতে পালিয়ে যায়। আর বাকিরা অন্যত্র গা ঢাকা দিয়ে আছে। এই স্বর্ণ ছিনতাইয়ের ঘটনায় আলোড়ন  সৃষ্টি হয়েছিলো পুরো জেলাজুড়ে।

27Shares
আরো পড়ুন :  রাতের আঁধারে স্ত্রীর মরদেহ ফেলতে গিয়ে স্বামী ধরা