ওসমানীনগরে পেশাদার ৬ ডাকাতসহ গ্রেফতার ৮

প্রকাশিত

বালাগঞ্জ (সিলেট) সংবাদদাতা  : সিলেটের ওসমানীনগরে যুবলীগ সভাপতি আনা মিয়ার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় অস্ত্রসহ ৬ ডাকাত ও  চুরির স্বর্ণ ক্রয়ের কারণে ২ স্বর্ণ ব্যবসায়ীসহ ৮ জনকে আটক করেছে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।
আটকৃতরা হল – জগন্নাথপুর  থানার পূর্ব তিলক গ্রামের মোঃ জসির খানের ছেলে মোঃ আব্দুল কাইয়ুম খান , মিজান (২৪), একই থানার চক-তিলক গ্রামের বেলায়েত মিয়ার ছেলে জুয়েল মিয়া (২৪), ওসমানীনগর থানার মাটিহানি গ্রামের আনছার আলীর ছেলে রাজু আহমদ (১৯), রবিদাস সোনারপাড়া গ্রামের সাবেক মেম্বার মাসুক মিয়ার ছেলে সাব্বির আহমদ (২৪), কানাইঘাট থানার জয়পুর গ্রামের মৃত সৈয়দুর রহমানের ছেলে ছয়ফুল আলম নাককাটা সাইফুল (৪০), বালাগঞ্জ থানার সাদিকপুর গ্রামের মফসির আলীর ছেলে হাজারী শিপন শিপন হাজারী (২৮) ও ডাকাতির স্বর্ন ক্রয়কৃত মৌলভীবাজার জেলার স্রেন্টাল রোডের এমবি আর জুয়েলার্সের ব্যবসায়ী সত্যজিত (৩৫) ও নাসির খান (৩০)।
শনিবার বিকেল ৩টায় ওসমানীনগর থানায় সাংবাদিকদের সাথে প্রেসবিফিংকালে পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের বিত্তিতে  মাটিহানি গ্রামের আনছার আলীর ছেলে রাজু আহমদ (১৯) কে প্রেফতার করা হলে তার দেওয়া তথ্যমতে  সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থান থেকে পৃথক পৃথক অভিযানের মাধ্যমে ডাকাতদের ব্যবহৃত একটি অটোরিক্সা (সিএনজি), তিনটি আগ্নেয়াস্ত্র, ৪ রাউন্ড গুলি, একটি চুরি, একটি রাম দা ও একটি কাটার, এক জোড়া স্বর্নের জোমকা, তিনটি কানের দুল,স্বর্ন গলানোর যন্ত্র ও স্বর্ন বিক্রির নগদ ১লক্ষ ৫ হাজার ৭শত টাকাসহ তাদের আটক করা হয়। আটকৃত ৬ ডাকাত ডাকাতির সাথে তাদের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে পুুলিশ জানিয়েছে।
এ ব্যাপরে ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আল মামুন বলেন – আটকৃত ডাকাতদের মধ্যে ৪জনকে ওসমানীনগর থানার মামলা নং- (৩) তারিখ :০৭/০২/২০১৯ ধারা ৩৯৫,৩৯৭ ও মামলা নং (৪) তারিখ ০৯/০২/২০১৯ ধারা ১৯৬৮ সনের অস্ত্র আইন সংশোধনী ২০০২ এর ১৯ অ  এবং ১৯ (ভ)  এর আওতায় আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। বাকীদের বিরুদ্ধে এসআই গৌতম সরকার বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় একটি মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন ও মৌলভীবাজারের ২স্বর্ন ব্যবসায়ীকে থানায় আটক করে রাখা হয়েছে।
Shares
আরো পড়ুন :  দুর্নীতি মামলায় খালেদার আপিল শুনানি চলছে