ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে আধুনিক করতে পারে স্কাউটিং : রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত

ডেস্ক নিউজঃ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, স্কাউট আন্দোলন শিশু-কিশোরদের চারিত্রিক গুণাবলী বিকাশে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। লেখাপড়ার পাশাপাশি সামাজিক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করার মানসিকতা তৈরিতে স্কাউটিংয়ের ভূমিকা অনন্য। স্কাউটিংই পারে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে আধুনিক, প্রগতিশীল ও সৃজনশীল করে গড়ে তুলতে।

আজ রোববার (১০ মার্চ) বিকেলে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক জাতীয় স্কাউট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সাত দিনব্যাপী দশম বাংলাদেশ ও তৃতীয় সানসো স্কাউট জাম্বুরী উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, স্কাউটরা নিয়মিত সমাজ সেবামূলক কাজের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন প্রকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা ও আর্তমানবতার সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন। বাংলাদেশকে আরো সুন্দর করে গড়ে তুলতে তারা অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারে। বিশেষ করে শিশু-কিশোর ও যুবকদের মাদক, ধর্মান্ধতা, সাম্প্রদায়িকতা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদে বিষবাষ্প থেকে নিরাপদ এবং দূরে রাখতে স্কাউটিং ইতিবাচক অবদান রাখতে পারে।

আরো পড়ুন :  দুই শতাধিক বাংলাদেশি শিশু-কিশোর পশ্চিমবঙ্গে বন্দি

এ সময় তিনি বাংলাদেশের চলমান অগ্রযাত্রায় নেতৃত্বদানের জন্য আগামী প্রজন্মকে স্কাউটিংয়ের মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করতে স্কাউট নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান।

স্কাউটদের উদ্দেশ্যে আবদুল হামিদ বলেন, তোমাদের অবস্থান হবে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে। অন্তরে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা দেশপ্রেম, দেশের মানুষের প্রতি কর্তব্য ও মমত্ববোধ সব সময় জাগ্রত রাখতে হবে। নিজেরা ভালো কাজ করবে এবং অন্যদেরও ভালো কাজে অংশ গ্রহণের আহ্বান জানাবে। আগামীদিনে তোমরাই বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবে। তোমরাই জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণ করবে। এজন্য তোমাদের যোগ্য ও দক্ষ হয়ে উঠতে হবে।

তিনি বলেন, স্কাউট জাম্বুরী শত বছরের রোভারিং চেতনাকে উজ্জ্বীবিত করার পাশাপাশি দেশে রোভার ও স্কাউটিংয়ের সম্প্রাসারণ, ভ্রাতৃত্বরোধ এবং সৌহার্দের বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করতে সহায়ক হবে। বহির্বিশ্বের স্কাউটদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমাদের স্কাউটরা দেশের আর্থ সামজিক উন্নয়নে আরো অবদান রাখবে।

আরো পড়ুন :  মিয়ানমারে ফিরে গেলে নাগরিকত্ব পাবে না রোহিঙ্গারা!

অনুষ্ঠানে আর ও বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ স্কাউটসের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ স্কাউটসের প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান, জাম্বুরীর সাংগঠনিক কমিটির সভাপতি সভাপতি আক্তারুজ্জামান কবীর প্রমুখ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান হুমায়ুন কবীর, কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী হাফিজুল আমিনসহ বাংলাদেশ স্কাউটসের কর্মকর্তা-কর্মচারী, দেশ-বিদেশ থেকে আগত স্কাউটসরা।

Shares