টঙ্গীতে যুবলীগ নেতার বাড়িতে আ’লীগ নেতার নেতৃত্বে হামলা ভাংচুর

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টঙ্গীতে আওয়ামীলীগ নেতা ও ওয়ার্ড কাউন্সিলরের নেতৃত্বে শনিবার যুবলীগ নেতার বাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় টঙ্গীর ৪৬ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আলী হোসেন আহত হয়েছেন। এসময় তার ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর ও তছনছ করা হয়।
যুবলীগ নেতা আলী হোসেন অভিযোগ করে জানান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৪৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও টঙ্গী থানা আওয়ামীলীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক নূরুল ইসলাম নুরুর নেতৃত্বে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী শনিবার বেলা আড়াইটায় তার স্থানীয় শৈলারগাতির বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসীরা তার ঘরে ঢুকে যাবতীয় আসবাবপত্র ভাংচুর ও তছনছ করে এবং তাকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে বাড়ির পাশের মাদরাসা মাঠে নিয়ে প্রকাশ্যে মারধর করে। সন্ত্রাসীরা বাড়িতে ঢুকে তার ভার্সিটি পড়–য়া ছেলেসহ পরিবারের সকল সদস্যের ওপর চড়াও হয়। একটি বেসরকারি ইউনিভার্সিটির ছাত্র আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম বলেন, আমার বাবাকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য আমি কাউন্সিলরের পায়ে ধরে কান্নাকাটি করি এবং আমার বৃদ্ধ দাদাও কাউন্সিলরের পায়ে পড়ে বাবাকে ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানায়। এরপরও আমার বাবাকে মাঠে ফেলে লাঠি দিয়ে বেদড়ক পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। আলী বলেন, আমার নেতৃত্বে স্থানীয় ফাইসন্স রোডে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অফিস উদ্বোধন করায় কাউন্সিলর নুরু প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে হামলা চালিয়েছে।
এদিকে এব্যাপারে কাউন্সিলর নূরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শনিবার বাদ জোহর স্থানীয় মাদরাসা মাঠে তিনি একটি জানাযায় শরিক হন। জানাযা শেষে যুবলীগ নেতা আলী তার সাথে ঐদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেন। এতে এলাকাবাসী ক্ষুব্দ হয়ে আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। পরে তিনি সেখানে গিয়ে এলাকার ক্ষুব্দ যুবকদেরকে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। তিনি হস্তক্ষেপ না করলে পরিস্থিতি আরো খারাপ হতো বলেও তিনি জানান।

1Shares
আরো পড়ুন :  বাংলাদেশ নেই এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকিতে