ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ঢাকায়

প্রকাশিত

অনলাইন ডেস্ক-

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং চারদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকা পৌঁছেছেন। আজ শুক্রবার সকাল ৮টার পর রয়েল ভুটান এয়ারলাইনসে তিনি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। সকাল ৮টা ২০ মিনিটে বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এবারের সফরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। স্বাক্ষরিত হবে কয়েকটি চুক্তি।

সফরের শুরুতেই ধানমণ্ডি ৩২ এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শেরিং। বেলা ১২টায় শ্রদ্ধা জানানোর পর কিছু সময় নীবরে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি পরিদর্শক বইয়ে তার মন্তব্য লেখেন এবং স্বাক্ষর করেন।

এর আগে সাভার স্মৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে দিনের কর্মসূচি শুরু করেন শেরিং। দুপুরে বারিধারায় ভুটান দূতাবাসে যান তিনি। বিকালে বুদ্ধিস্ট মোনাস্টারি কমপ্লেক্স, বাসাবো, সবুজবাগ এবং এরপর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হবেন তিনি। এফবিসিসিআইয়ের নেতাদের সঙ্গেও এদিন বৈঠক করবেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী।

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (শিমুল) দুই প্রধানমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

বৈঠকে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবহার করে ভুটানের বাণিজ্য সুবিধা ছাড়াও কৃষি ও স্বাস্থ্য খাতে কয়েকটি চুক্তি সই হতে পারে। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে (চামেলী) দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আনুষ্ঠানিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

সফরকালে পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং। এছাড়া তিনি যেখানে পড়াশোনা করেছেন সেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ও রয়েছে তার সফরের তালিকায়।