ফেনীতে ডাকাত ‘সন্দেহে’ গণপিটুনিতে তিনজন নিহত।

প্রকাশিত

নোয়াখালী প্রতিনিধি।
ফেনীর দাগনভূঞায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন।
শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার মাতুভূঞা ইউনিয়নের উত্তর আলিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দাগনভূঁঞা থানার ওসি সালেহ আহমদ পাঠান। নিহতরা হলেন- নোয়াখালীর চর কাকড়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে সোহাগ (৩০), ভোলার চর ফ্যাশনের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মনির হোসেন (২৮) ও ফেনীর সোনাগাহীর লক্ষীগঞ্জ গ্রামের নুর আলম।ওসি সালেহ আহমদ পাঠান বলেন, শুক্রবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে ডাকাতদল আলীপুর গ্রামের হেদায়েতুল্লাহ ম্যানেজার বাড়িতে হানা দেয়। এ সময় বাড়ির লোকজন টের পেয়ে চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ডাকাতদের ঘিরে ফেলে। তাঁরা ডাকাতদের চারজনকে আটক করে গণপিটুনি দেন। গুরুতর আহত অবস্থায় শনিবার সকালে জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে দুজন মারা যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজন মারা যান। বাকি একজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আবু তাহের বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় চারজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এর মধ্যে তিনজন মারা গেছেন এবং একজন চিকিৎসাধীন আছেন।