সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক সারাক্ষণ একজন।

প্রকাশিত

সরাইল, প্রতিনিধি –

 

 

সারাদেশের ন্যায় সরাইলেও চলছে জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা সপ্তাহ ২০১৯। কিন্তু  ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিত্র সম্পুর্ন ভিন্ন। এখানে চিকিৎসক সংকট দীর্ঘদিনের, যারা বর্তমানে কর্মরত আছেন তারাও নিয়মিত হাসপাতালে সেবা দিচ্ছেনা। যে যার ইচ্ছে মতো কর্মস্থলে আসছেন আবার চলে যাচ্ছেন। যার দরুন চিকিৎসা সেবা ঠিক ভাবে পাচ্ছেনা রোগীরা। আর সরাইল হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ডাঃ আইনুল ইসলাম ও নিয়মিত থাকে না ক্যাম্পাসে।
বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টা থেকে ৫টা এবং  রাত ১০টায়  সরেজমিনে  গিয়ে দেখা যায় জরুরী বিভাগে অসংখ্য রোগীর ভীড়। কিন্তু কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ নুরুল হুদা অনুপস্থিত, উনার আজকে জরুরী বিভাগে সার্বক্ষণিক থাকার কথা থাকলেও উনি অনুপস্থিত। এসময় পাওয়া যায় সবার পরিচিত মুখ আবাসিক মেডিকেল অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ আনাস ইবনে মালেক কে।  উনার আজকে জরুরী বিভাগে থাকার কথা না থাকলেও উনি সেবা দিয়ে যাচ্ছেন রোগীদের। ডাঃ আনাস ইবনে মালেক বলছিলেন ভাই আর পারছিনা আমিও তো মানুষ আমারও জীবন আছে। আমার আর এই পদে থাকতে ইচ্ছে করে না  সবাই আমার উপর দায়িত্ব চাপিয়ে দিয়ে চলে যায়।
আজকের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডাঃ নুরুল হুদা কে মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিয়ে ও পাওয়া যায় নি।
রাত ৮:৩০ টার দিকে সরাইল উপজেলার বড্ডাপাড়া এলাকার শামসুল আলম বলেন, ডাক্তার আনাস না থাকলে এই হাসপাতাল পংগু হয়ে যাইবো কেউ চিকিৎসা পাইত না।