ফেনী নোয়াখালী মহাসড়কে মুখোমুখী সংঘর্ষ নিহত -১, আহত -১

প্রকাশিত

নোয়াখালী প্রতিনিধি।
ফেনী নোয়াখালী মহা সড়কের সেনবাগের ছমিরমুন্সীরহাট পশ্চিম বাজারে বাস – মটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে  কাবিলপুর ইউপির মহিদীপুর গ্রামের ওবায়দুল হকের পুত্র  ফরহাদ (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে।এতে মইজদীপুর গ্রামের তাজুল ইসলামের পুত্র  সাইফুল (১৮) গুরুতর আহত হয়েছে। স্হানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে  চৌমুহনীর লাইফ কেয়ার হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক  ফরহাদকে মৃত ঘোষনা করেন।  সাইফুল ওই হাসপাতালের দ্বিতীয় তলার ২০৪ নং কেবিনে  চিকিৎসাধীন রয়েছে। আজ রাতে ফেনী বসুরহাটের দ্রুতগামী বাসটি চৌমুহনী যাবার পথে বিপরীতদিক থেকে আসা মটরসাইকেলটির মুখোমুখী সংঘর্ষে   এ ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে সেনবাগ থানার এস আই গৌরসাহা ঘটনাস্হলে পৌছে  বাসটি আটক করেন। পরে বাসটি হাইওয়ে পুলিশ জব্দ করেন।
এদিকে, দূর্ঘটনায় বাইক চালক ফরহাদের মৃত্যুতে পুরোএলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।
স্হানীয় সারওয়ার আলম খান সারু জানান,নিহত ফরহাদ ২৬শে এপ্রিল স্টুডেন্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়া যাবার সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছিলো। সদ্যবিবাহিত স্ত্রী সহ পরিবার ও স্বজনদের মধ্যে চলছে শোকের মাতম।
স্হানীয়রা জানান, ফরহাদ কাবিলপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন।
রাত ১০ টায় লাইফকেয়ার হাসপাতালে যোগাযোগ করলে পরিচালক ডা: আবু তাহের জানান, গুরুত্বর আহত সাইফুল ২০৪ নং কেবিনে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
সেনবাগ থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল আলী পাটোয়ারী মহিদীপুরের ফরহাদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।