সুবর্ণচরে গৃহবধূ ও তার ভাই-বাবাকে আটকে রেখে নির্যাতন

প্রকাশিত

নোয়াখালী প্রতিনিধি –

 

 

নোয়াখালীর সুবর্ণচরের পূর্ব চরমজিদের এক গৃহবধূকে তার ভাই মোহাম্মদ আলী ও বাবা সাবউদ্দিনসহ শ্বশুর বাড়ি রাতভর আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে ইউপি মেম্বার খোকন ঐ গৃহবধূকে উদ্ধার করে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদেরকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধূর ভাই আহত মোহাম্মদ আলী ও তার স্বজনরা জানান, পাঁচ মাস আগে সুবর্ণচরের পূর্ব চরমজিদের আলাউদ্দিনের ছেলে আরিফ হোসেনের সাথে তার বোনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে আরিফ ও তার পরিবারের সদস্যরা যৌতুক ও স্বর্ণের দাবিতে তার কলেজ পড়ুয়াবোনকে মারধর করে আসছে। ঈদের পর দিন সন্ধ্যায় তাকে আনতে তার শ্বশুর বাড়িতে গেলে তার ভগ্নিপতি আরিফ ও তার পরিবারের সদস্যরা তাদের মারধর করে এবং তার বোনকে নির্যাতন করে আটকে রাখে। খবর পেয়ে চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিলের হস্তক্ষেপে ইউপি মেম্বার খোকন গৃহবধূসহ সবাইকে উদ্ধার করে।