প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গাংনীতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন উদ্বোধন হলেও আজও চালু হয়নি।

প্রকাশিত

লিটন মাহমুদ,মেহেরপুর প্রতিনিধি- জানমালের নিরাপত্তা ,বাংলাদেশের উন্নয়ন সত্বা’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গাংনীতে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে উদ্বোধন করেছেন। সারা দেশের ন্যায় গাংনীতেও ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের শুভ উদ্বোধন করা হলেও আজ পর্যন্ত কোনই কাজে আসেনি।বিগত (২.১১.২০১৮ ইং) ৮ মাস আগে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে গাংনী উপজেলার বামন্দীতে অগ্নি নির্বাপনের জন্য ফায়ার সার্ভিস স্টেশন উদ্বোধন করা হলেও কার্যত আজও চালু করা হয়নি। কবে নাগাদ চালু করা হবে তা সংশ্লিষ্ট কেউ বলতে পারছেন না। গাংনী-কুষ্টিয়া সড়কের বামন্দী বাসষ্ট্যান্ডের অদূরে ৩৩ শতাংশ জমির উপর নির্মিত হয়েছে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তা, জেলার শীর্ষ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের উপ পরিচালক আব্দুস সালাম উপস্থিত ছিলেন।
এব্যাপারে, মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশন এর ষ্টেশন মাষ্টার জাহিদুর রহমান জানান, ষ্টেশনটি চালু করার জন্য সমস্ত কার্যক্রম শেষ। রাজস্ব খাতে অনুমোদিত হওয়ায় লোকবল নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আগামী জুলাই মাসের মধ্যে বামন্দী স্টেশনটি চালু করা হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই আমাদের প্রয়োজনীয় গাড়ি ও মালামাল পৌঁছে গেছে। বর্তমানে উপ পরিচালক হিসাবে শরিফুল ইসলাম যোগদান করার পর বামন্দী স্টেশনে মালামাল রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ৪ জন কর্মীকে পোষ্টিং দেয়া হয়েছে।তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ গাংনী উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন না থাকায় আগুনে বহু ঘরবাড়ি ও সম্পদ পুড়ে নষ্ট হয়েছে। এসব সম্পদ রক্ষা করতেই মূলতঃ ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে।