এরশাদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি, শয্যাপাশে রওশন

প্রকাশিত

সিএমএইচে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অবস্থা আগের চাইতে কিছুটা উন্নতির দিকে। দুদিন তার ধারে কাছে কেউ যেতে পারেননি। এ অবস্থায় তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এখন একটু একটু কথা বলছেন। লোকজনকেও চিনতে পারছেন। তবে শারিরিক অবস্থা খুবই দুর্বল। এখনো তিনি শঙ্কামুক্ত নন।

শুক্রবার মাগরিবের পর তাকে সিএমএইচে দেখতে যান স্ত্রী রওশন এরশাদ ও ছেলে রাহ্গীর আল মাহে এরশাদ। এ সময় তারা এরশাদের পাশে গিয়ে বসেন এবং কথাও বলেছেন। বেশ কিছুক্ষণ তারা সেখানে অবস্থান করে চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। চিকিৎসকদের সঙ্গেও করণীয় নিয়ে কথা বলেছেন।

শুক্রবার রাতে রওশন এরশাদ জানান, বিরোধীদলীয় নেতা এইচ এম এরশাদ ক্রমশ সুস্থ্য হয়ে উঠছেন। স্বামীর চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি আশা করেন, এভাবে নিবিড় চিকিৎসার মাধ্যমে শারিরিক অবস্থার যে উন্নতি ঘটছে তার ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদের রোগমুক্তি ও সুস্থতা   কামনা করে দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছেন রওশন এরশাদ।

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের বিকেলে জানিয়েছেন, তার ভাই এখনো শঙ্কামুক্ত নয়। সুস্থ করতে চিকিৎসকরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এর মধ্যেই একটু একটু কথা বলেছেন। চিকিৎসকরা তাকে জানিয়েছেন এরশাদের শারিরিক অবস্থা আগের চেয়ে ৪০ শতাংশ উন্নতি হয়েছে।

 

 

দুপুরে হাসপাতাল থেকে তার বাসার এক সহকারী জানান, এখানে নিবিড়ভাবে স্যারকে  (এরশাদ) চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। চিকিৎসা নিয়ে কোনো অবহেলা হচ্ছে না। ডাক্তাররা যখন যা করা দরকার তাই করছেন। তারা বলেছেন, স্যারের শরীর খুব দুর্বল হয়ে পড়েছে। আগে জ্বর ছিল এখন নেই। প্রেসারও স্বাভাবিক রয়েছে। চিকিৎসকরা বেশকিছু বিষয় নিয়ে পরীক্ষা করেছেন। এসব পরীক্ষার রিপোর্টও তাদের হাতে এসেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আশা করি স্যার দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।

এরশাদের জন্য মিলাদ মাহফিল :

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনের এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার উদ্যোগে শুক্রবার সোনারগাঁও উপজেলার বিভিন্ন মসজিদে জুমার নামাজ শেষে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এমপি খোকা বলেন, ৬৮ হাজার গ্রাম বাংলার উন্নয়নের জনক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আজ অসুস্থ। সুখী সমৃদ্ধিশালী বাংলাদেশের জন্যই তাকে দরকার। তার উন্নয়ন এখনো গ্রামে গঞ্জে সারা দেশে ছড়িয়ে আছে। তিনি বাঁচলে বাংলাদেশ বাঁচবে। তাই স্যারের সুস্থতা কামনা করছি।

‘আশা করি, দেশবাসীর দোয়া ও মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের রহমতে আমাদের প্রাণপ্রিয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ  সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে দেশ সেবায় নিয়োজিত হবেন।