সহজেই জয় করুন বসের মন

প্রকাশিত

কর্মী হিসেবে লক্ষ্য হওয়া উচিত আপনার বসের জীবনকে আরো সহজ করা। আপনি যদি আপনার ম্যানেজারকে (বস) সহায়তা করতে পারেন তাদের পরিচালকদের কাছে ভালো লাগতে, তাহলে আপনিও কর্মক্ষেত্রে ভালো থাকবেন।

সারা সপ্তাহের কাজের একটি বৃত্তান্ত বসকে মেইল করুন : যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় কর্মস্থল বিশেষজ্ঞ লিন টেইলর বিজনেস ইনসাইডারকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, নতুন কর্মস্থলে বসকে জিজ্ঞেস করুন তিনি কতদিন পর পর আপনার সম্পাদিত কাজ পরীক্ষা করতে চান। এ ছাড়াও, নিজে আগ্রহী হয়ে বসকে কাজের অগ্রগতি জানান। তাহলে কোন কাজ কতটুকু করেছেন সে বিষয়ে তিনি পূর্ণাঙ্গ ধারণা পাবেন। ‘বারকিং আপ দ্য রং ট্রি’ বইয়ের লেখক এরিক বারবারের পরামর্শ হচ্ছে, চলতি সপ্তাহে কী কী কাজ শেষ করেছেন তার একটি ছোট্ট বৃত্তান্ত সপ্তাহান্তে বসকে মেইল করুন।

 

 

কাজের অগ্রগতি জানতে চাইলে বিনয়ের সঙ্গে জানান : বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল ও অ্যাপলের সাবেক কর্মী কিম স্কট বলেন, প্রত্যেক ম্যানেজার তার কর্মীদলের কাজে অগ্রগতি নিয়মিত জানতে চান। সুতরাং কর্মীদের উচিত বিনয় ও সততার সঙ্গে বসকে কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে জানানো।
তিনি আরো বলেন, অগ্রগতি বিষয়ে আপনার সদুত্তর হয়তো বসের দুশ্চিন্তা বাড়াতে পারে। কিন্তু আপনি যদি বসের জীবনকে আরো সহজ করতে চান, তাহলে নীরবে অপেক্ষা করবেন না। এমন সবদিকের কথা ভাবুন যেখানে কর্তৃপক্ষের উন্নতি করার প্রয়োজন রয়েছে এবং গঠনমূলক সমালোচনা করুন।

নিজের পেশাগত লক্ষ্যের ব্যাপারে বসকে অবগত করুন : ক্যারিয়ারবিষয়ক অনলাইন প্ল্যাটফর্ম দ্য মিউসের ভাইস প্রেসিডেন্ট টনি থম্পসন বলেন, ‘পেশাগত জীবনে নিজেকে কোন পর্যায়ে দেখতে চান সে ব্যাপারে বসের সঙ্গে খোলাখুলিভাবে আলোচনা করুন। তাহলে ঊর্ধ্বতন বস আপনার লক্ষ্য সম্পর্কে একটি স্পষ্ট ধারণা পাবেন।’ তিনি আরো বলেন, ‘আপনি ততক্ষণ কাক্সিক্ষত পদোন্নতি পাবেন না, যতক্ষণ আপনার বস আপনার পেশাগত জীবনের লক্ষ্য সম্পর্কে জানতে না পারবেন। আপনার লক্ষ্য জানাটা বসের জন্যও সহায়ক হবে। কেমন ভ‚মিকা বা কেমন চ্যালেঞ্জ আপনি নিতে চান তা বসকে আর অনুমান করতে হবে না এবং তিনি সম্ভাব্য সেরা টিম গঠন করতে পারবেন।’

গুরুত্বপূর্ণ প্রজেক্টগুলোতে ভূমিকা রাখুন : প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ প্রজেক্টগুলোতে ভূমিকা রাখতে চেষ্টা করুন। যদি সেগুলো আপনার কর্মপরিধির আওতায় নাও পড়ে। এটাই বসের কাছে প্রতিষ্ঠানের আর দশজনের থেকে আপনাকে আলাদা করে উপস্থাপন করবে।
টেইলর বলেন, ‘কর্মী হিসেবে আপনার সুনাম তখনই ছড়িয়ে পড়বে যখন কাক্সিক্ষত কাজ সম্পর্কে নিজের দক্ষতা নিশ্চিত করবেন এবং নিজের সাধ্যের বাইরের কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকবেন।’