খালেদার মুক্তি ও গ্যাসের দাম কমানোর দাবি – বিএনপি

প্রকাশিত

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গ্যাসের দাম কমানোর দাবি জানিয়েছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় দেড় বছর বন্দি রাখা হয়েছে। তিনি গুরুতর অসুস্থ। অথচ তার জামিনে বাধা দেয়া হচ্ছে। একজন নাগরিক হিসেবে সংবিধান প্রদত্ত আইনগত অধিকার থেকেও তাকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। আমি এ মুহূর্তে খালেদা জিয়ার সব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।
গতকাল বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব দাবি তুলে ধরেন। বিএনপির এই নেতা বলেন, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত দেশের প্রকৃত মালিক জনগণ তাদের ক্ষমতা ফিরে পাবে না।
নির্বাচন কমিশনকে উদ্দেশ করে রিজভী বলেন, আপনাদের প্রকাশিত ফল ও বক্তব্যে প্রমাণ হয়েছে, দেশে কোনো নির্বাচন হয়নি। ছয় মাস পর নির্বাচন কমিশন কেন্দ্রভত্তিক যে ফল প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা গেছে দেশে কোনো নির্বাচন হয়নি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা ৩০ জুন বলেছেন, শতভাগ ভোট পড়া কোনো স্বাভাবিক ঘটনা নয়। তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতির কাছে আমাদের আবেদন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিল করুন। উচ্চপর্যায়ের তদন্ত কমিশন করে যারা এ অনিয়মের সঙ্গে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে আপনার কঠোর ব্যবস্থা নেয়া উচিত। গ্যাসের দামবৃদ্ধির বিষয়ে রিজভী বলেন, পৃথিবীর সব গণতান্ত্রিক দেশে গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানিতে ভর্তুকি দেয়া হয়। সরকার ভর্তুকি দেয় জনগণের টাকায়। কিন্তু এখানে গ্যাসের দাম বাড়ার ফলে কল-কারখানায় উৎপাদন খরচ বেড়ে গেছে। তার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে সর্বত্র। তিনি বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীকে বলব, গ্যাসের দাম কমান। গ্যাসের দাম বাড়ানোর কারণে জনজীবনে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। জনগণ ক্ষোভে ফুঁসছে।