যশোর শিক্ষা বোর্ডে পুণঃনিরীক্ষার আবেদন ২৩ হাজার

প্রকাশিত

রনি ইসলাম যশোর প্রতিনিধি: যশোর শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষার খাতা পুণঃনিরীক্ষার আবেদন করছেন ২৩ হাজার ১২৩ জন শিক্ষার্থী। এরমধ্যে ইংরেজিতেই আবেদন পড়েছে ৭ হাজার ৪৩৭। তবে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, খাতা দেখায় ভুল করা পরীক্ষককে শাস্তি দেয়া হয়। এ কারণে এ বছর ১০ হাজার ৪৩৫ জন কম শিক্ষার্থী পুণঃনিরীক্ষা জন্য আবেদন করেছে। গত ১৭ জুলাই সারা দেশের ন্যায় একযোগে এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে যশোর শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এরপর খাতা পুণঃনিরীক্ষা জন্য সাতদিনের সময় নির্ধারণ করে দেয়া হয়। সময় শেষ হয়েছে ২৪ জুলাই বুধবার। এ সময়ের মধ্যে খাতা পুণঃনিরীক্ষা জন্য আবেদন করেছে ২৩ হাজার ১২৩ জন শিক্ষার্থী। এরমধ্যে ইংরেজি প্রথমপত্রে ৩ হাজার ৮৩২ জন, ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রে ৩ হাজার ৬০৫ জন, বাংলা প্রথমপত্রে ১ হাজার ৮৯৩ জন, বাংলা দ্বিতীয়পত্রে ১ হাজার ২৫৩ জন, অর্থনীতি প্রথমপত্রে ১৬৫ জন, অর্থনীতি দ্বিতীয়পত্রে ১২৪ জন, সমাজ বিজ্ঞান প্রথমপত্রে ১৪৮ জন, সমাজবিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ৮৪ জন, যুক্তিবিদ্যা প্রথমপত্রে ৪৫ জন, যুক্তিবিদ্যায় ৬২ জন, মনোবিজ্ঞান প্রথমপত্রে ৭ জন, মনোবিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ১১ জন, ভূগোল প্রথমপত্রে ১৮০ জন, ভূগোল দ্বিতীয়পত্রে ১৪৩ জন, পরিসংখ্যান প্রথমপত্রে ১৪ জন, পরিসংখ্যান দ্বিতীয়পত্রে ৬ জন, সাংস্কৃতিবিদ্যা প্রথমপত্রে ২ জন, সাংস্কৃতিবিদ্যা দ্বিতীয়পত্রে ১ জন, পদার্থ বিজ্ঞানপ্রথম পত্রে ১ হাজার ৪৫৬ জন, পদার্থবিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ১ হাজার ১৬২ জন, রসায়ন প্রথমপত্রে ১ হাজার ৬১ জন, রসায়ন দ্বিতীয়পত্রে ১ হাজার ১৫১ জন, জীববিজ্ঞান প্রথমপত্রে ৬৪৮ জন, জীববিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ৫৪৩ জন, কৃষিবিজ্ঞান প্রথমপত্রে ৭৬ জন, কৃষি বিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ৪২ জন, ইসলাম শিক্ষা প্রথমপত্রে ১০ জন, ইসলামশিক্ষা দ্বিতীয়পত্রে ১১ জন, হিসাব বিজ্ঞান প্রথমপত্রে ১৮৪ জন, হিসাব বিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ১৯২ জন, উচ্চতর গণিত প্রথমপত্রে ১ হাজার ৩৫ জন, উচ্চতর গণিত দ্বিতীয়পত্রে ৬৪৯ জন, ইসলামের ইতিহাস প্রথমপত্রে ৬৮ জন, ইসলামের ইতিহাস দ্বিতীয় পত্রে ৬৯ জন, পৌরনীতি প্রথমপত্রে ১৩৩ জন পৌরনীতি দ্বিতীয়পত্রে ১৬৪ জন, সমাজকর্ম প্রথমপত্রে ৩২ জন, সমাজকর্ম দ্বিতীয়পত্রে ২৯ জন, ইতিহাস প্রথমপত্রে ৫৮ জন, ইতিহাস দ্বিতীয়পত্রে ৪৯ জন, ফিন্যান্স প্রথমপত্রে ৫৪ জন, ফিন্যান্স দ্বিতীয়পত্রে ৫২ জন, উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা প্রথমপত্রে ১০৪ জন, উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা দ্বিতীয়পত্রে ৪৪ জন, ব্যবসায়ী সংগঠন প্রথমপত্রে ২১০ জন, ব্যবসায়ী সংগঠন দ্বিতীয় পত্রে ২০৭ জন, আইসিটিতে ১ হাজার ৯৪৪ জন, গাহর্স্থ্য বিজ্ঞান প্রথমপত্রে ১৬ জন এবং গাহর্স্থ্য বিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্রে ১১ জন শিক্ষার্থী খাতা পুণঃনিরীক্ষা জন্য আবেদন করেছেন। এ ব্যাপারে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, অভিজ্ঞ পরীক্ষক দিয়ে খাতা পুননিরীক্ষা করা হবে। যার যে প্রাপ্য ফলাফল সেটাই দেয়া হবে। আর খাতা দেখায় ভুল করা পরীক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পুণঃনিরীক্ষা ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগামী ১০ আগস্ট।