পিতার অপমান সইতে না পেরে ছাত্রীর বিষপান

প্রকাশিত

মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি-

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পিতার অপমান সইতে না পেরে খুশি আক্তার (১২) নামে এক ছাত্রী আত্মহননের উদ্দেশে বিষপান করেছে। পরে তাকে মোরেলগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় শনিবার বেলা ১১ টায় মোরেলগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা ২৫০ সয্যা হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

 

 

খুশি আক্তার বিবি আফছার আলী মাধ্যমিক বিদ্যলয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

এ বিষয়ে খুশির পিতা ইলিয়াস খলিফা অভিযোগ করে বলেন, তার মেয়ের সাথে নবম শ্রেণির এক ছাত্রের সাথে প্রেমঘটিত বিষয় নিয়ে আজ বিদ্যালয়ে শালিস বৈঠক বসে। ওই সময় মেয়ের সামনে তাকে শিক্ষকরা মারধর করে স্কুল থেকে বের করে দেয়। খুশি ওই দৃশ্য দেখে অপমান সইতে না পেরে বাড়িতে গিয়ে ঘরে থাকা কিটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।

এবিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, খুশির পিতার সাথে কোনো শিক্ষক খারাপ ব্যবহার করেনি। আলোচনার এক পর্যায়ে খুশির পিতা উত্তেজিত হলে শিক্ষকরা তাকে বের করে দেয়।

এ সম্পর্কে স্কুলের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বলেন, খুশির পিতাকে কোনো শিক্ষক মারপিট করেনি। খুশির বিষপানের নেপথ্যে অন্য কোনো কারণ থাকতে পারে।