একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি লিপিষ্টিক ইমরানকে নিয়ে প্রকাশে পুলিশের সু বিশাল র‌্যালি

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুলিশের খাতায় পলাতক আসামিকে নিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি আলমগীর হোসেন ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চালিয়েছে। একাধিক মামলার আসামি আল ইমরান ওরফে লিপিষ্টিক ইমরানকে সাথে এ র‌্যালি করায় সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় উঠেছে। তবে পুলিশের ওসি বলেছে বিষয়টি জানা নেই। বেনাপোল পোর্ট থানার ভবেরবেড় গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আল ইমরান ওরফে লিপিষ্টিক ইমরান একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী। রয়েছে তার একাধিক বাহিনী। এসব বাহিনী দিয়ে সে চাঁদাবাজীসহ সন্ত্রাসী এবং মাদক ব্যবসা করে আসছে। আল ইমরানের বিরুদ্ধে বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের অফিস ভাংচুর মামলা (মামলা নম্বর ৩৪৪/১৮, তারিখ : ২১.০৬.২০১৮), কাস্টমস কর্মকর্তা হত্যা চেষ্টা (মামলা নম্বর ৫২, তারিখ : ১৭.২.২০১৬), সাংবাদিক হত্যা চেষ্টা (নম্বর ৫৩, তারিখ : ২৭.১.২০১৮) মামলার চার্জশিট ভুক্ত আসামি। আদালত থেকে জামিন না নিয়ে প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি বেনাপোল পোর্ট থানায় হরহামেশায় যাতায়াত করছে এবং ওসিসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যের সাথে চা বিস্কুট খাচ্ছেন। মামলার তদবিরও করছেন। অথচ বেনাপোল পোর্ট থানার পুলিশ বলছে, আল ইমরান দীর্ঘদিন ধরে পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাকে খুঁজে পাচ্ছে না। গ্রেফতার এড়াতে সে গা ঢাকা দিয়েছে। এদিকে বেলা ১১টার দিকে বেনাপোল পোর্ট থানার তত্ত্বাবধানে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতন মূলক কার্যক্রম চালানোর জন্য বেনাপোলে র‌্যালি বের করে। র‌্যালির নেতৃত্ব দেন পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (ওসি-তদন্ত) আলমগীর হোসেন। আর এ র‌্যালিটি সফল করে আল ইমরান ওরফে লিপিষ্টিক ইমরান। ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি নিয়ে প্রকাশ্যে পুলিশ র‌্যালি করায় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছে, পুলিশ শীর্ষ সন্ত্রাসীর কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়ে প্রকাশ্যে র‌্যালি করছে। যা মোটেও উচিত হয়নি। আকিব হোসেন নামে বেনাপোলের এক ব্যবসায়ী বলেছেন, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিকে নিয়ে পুলিশ র‌্যালি করায় পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে। এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (ওসি-তদন্ত) আলমগীর হোসেন বলেছেন, মিছিল বা র‌্যালিতে অনেক লোক থাকে। কার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আছে বা নেই র‌্যালিতে অংশ নেয়ার সময় খোঁজ করা সম্ভব নয়।