ছাত্রলীগ নেতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত

সনজিত কর্মকার, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি-
চুয়াডাঙ্গাঃ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় আলমগীর হোসেন (২৩) নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ আগস্ট) রাতে উপজেলার লক্ষীপুর-নতিপোতা সড়কে গয়েশপুর পাড়া নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে।

আলমগীর হোসেন উপজেলার দলকালক্ষীপুর গ্রামের সালাউদ্দিন মঞ্জুর ছেলে ও জুড়ানপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি।

 

 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেন শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে লক্ষীপুর-নতিপোতা সড়কে গয়েশপুরপাড়া নামক স্থানে পৌঁছালে কয়েকজন দুর্বৃত্তরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। এ সময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে রাস্তার ওপর ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থা মারাত্মক হওয়ায় তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার্ড করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে দামুড়হুদা মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শুকুমার বিশ্বাস জানান, ছাত্রলীগ নেতা আলমগীর হোসেনের পায়ে ৬টি ধারালো অস্ত্রের কপে রক্তাক্ত জখম হয়েছে। পূর্ব শক্রতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, আসামিদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। এখনো পর্যন্ত তার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ মামলা করতে থানায় আসেনি। মামলা দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।