রামগঞ্জে চাঁদা না দেওয়ার নির্মান কাজ বন্ধ

প্রকাশিত

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি-
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার পদ্মা বাজারে চাঁদা না পাওয়া শুক্রবার বিকেলে বাবুল ও সিরাজের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ স্থানীয় ব্যবসায়ী আবুল কালাম ও ইব্রাহিম খলিল সোহাগের র্নিমানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মান বন্ধ করে দিয়েছে। সৃষ্ঠ ঘটনা বাজার ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সূত্রে জানায়,লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ থেকে ১৯৮৪ সালে লীজ নিয়ে উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের আঃ রব বেপারী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মান কাজ করে। কয়েক বছর ব্যবসা করার পর প্রতিষ্ঠানটি একই গ্রামের আবুল কালাম ও ইব্রাহিম খলিলের কাছে হস্তান্তর করলেতারা ব্যবসা করতে থাকে। ব্যবসায়ী আবুল কালাম ও ইব্রাহিম খলিল সোহাগ বলেন,কিছু দিন পুর্বে আমরা পুরাতন জরার্জীণ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি ভেঙ্গে নতুন করে নির্মান কাজ শুরু করলে এলাকার দুস্কৃতিকারী সিরাজ,বাবুল এসে বাধা দিয়ে জোরপূর্বক টাকা দাবী করে। তাদের চাহিদা মোতাবেক টাকা না দেওয়ায় বাবুল ও সিরাজ নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয় এবং সার্বক্ষনিক সন্ত্রাসী পাহারা বসিয়ে রাখে। এব্যাপারে জানতে চাইলে বাবুল মিয়া বলেন, আমরা এলাকায় জনগনের জন্য কাজ করি। সে সুবাদে নিজের পকেটের টাকা পয়সা দিয়ে কিছু ছেলেপেলের খরচাপাতি চালানো লাগে। এজন্য তাদের কাছ থেকে সমঝোতার মাধ্যমে কিছু টাকা দিতে বলেছি। এটা কোন চাঁদা নয়।
এ ব্যাপারে বাজার কমিটির সভাপতি ডাঃ আবু তাহের জানান, দীর্ঘ ৩০ বছরের পুরানো ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জরাজীর্ন হওয়ার কারনে সংস্কারের উদ্যোগ নিয়ে বাবুল ও সিরাজের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়।