নেপালে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ বাংলাদেশ দলে গোলরক্ষক সৈয়দপুরের সন্তান রানু

প্রকাশিত

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি – বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের এবারে আসর শেষ হয়েছে। জাতীয় ফুটবল দল ব্যস্ত সময় পার করছে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের মিশন সামনে রেখে। এর মধ্যেই নেপালে গড়াচ্ছে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮। এবার সাত দেশের অংশগ্রহণ ও দুটি গ্রুপে টুর্নামেন্টটি আয়োজিত হতে যাচ্ছে। গ্রুপ ‘বি’ তে থাকছে তিনটি দল বাংলাদেশ, ভারত ও শ্রীলঙ্কা।
ইতোমধ্যে ঘোষণা করা হয়েছে ২১ সদস্য বিশিষ্ট অনূর্ধ্ব-১৮ বাংলাদেশ দল। দলে রাখা হয়েছে তিনজন গোলরক্ষকে। তবে আরেকজন গোলরক্ষকের অন্তর্ভুক্তি হতে পারে বলে জানা গেছে। তিন গোলরক্ষকের মধ্যে একজন নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের সন্তান মহিউদ্দিন রানু। তিনি তার শ্রেষ্ঠত্ব নিয়েই দলে জায়গা করে নিয়েছেন। সদ্য সমাপ্ত পেশাদার লীগে খেলেছেন ব্রাদার্স ইউনিয়ন লিমিটেডের হয়ে। এছাড়াও নীলফামারী জেলার দুইজনসহ তিনজন দলে সুযোগ করে নিয়েছেন। বাকী দুজন উত্তম রায় ও দিপক রায়।
সাক্ষাৎকারে রানু বলেন, ট্রাইলের মাধ্যমে তাদেরকে বাছাই করে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, দেশের বাহিরের ভেন্যুতে খেলা একটু চ্যালেঞ্জিং হবে আমাদের জন্য। তবে দেশের ফুটবলকে সামনে নিয়ে যেতে যদি ম্যাচে সুযোগ হয় তাহলে নিজের বেস্ট দেয়ার চেষ্টা করবো।
এবারের সাফ অনুর্ধ ১৮ বাংলাদেশ দলের স্কোয়াড নি¤œরূপ-
গোলরক্ষক- আরিফুল ইসলাম (ঢাকা আবাহনী), শান্ত কুমার রায় (সাইফ) এবং মহিউদ্দিন রানু (ব্রাদার্স)। ডিফেন্ডার- রাকিবুল ইসলাম (বসুন্ধরা), ইয়াসিন আরাফাত (সাইফ), তানভীর হোসেন (সাইফ), মাহমুদ ফাহিম (মুক্তিযোদ্ধা), উত্তম চন্দ্র রায় (ব্রাদার্স), মোহাম্মদ ফাহিম (নোফেল) এবং জমির উদ্দিন (নোফেল)। মিডফিল্ডার- মোহাম্মদ রিদয় (ঢাকা আবাহনী), জাভেদ আহমেদ (সাইফ), সাব্বির হোসেন (সাইফ) এবং সম্রাট আহমেদ রাজ (রহমতগঞ্জ)। ফরোয়ার্ড- দীপক রায় (ঢাকা আবাহনী), ফয়সাল আহমেদ ফাহিম (সাইফ), মারাজ হোসেন (সাইফ), আহমেদ আবিদ (সাইফ), মোহাম্মদ জুয়েল (আরামবাগ), বাপ্পি (মোহামেডান) এবং নাঈম হোসেন (ব্রাদার্স)।