ফরিদপুরের স্কুল শিক্ষক নুরুল ইসলাম এবার চারশত তালগাছের বীজ রোপন করলেন

প্রকাশিত

মাহবুব হোসেন পিয়াল, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি –
ফরিদপুরের স্কুল শিক্ষক মোঃ নুরুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ও অনুপ্রেরনায় পরিবেশ রক্ষা,বর্জ্রপাতে মৃত্যু ও ক্ষয় ক্ষতি কমাতে ফরিদপুরে চারশত তালগাছ রোপনের কর্মসুচি গ্রহন করেছেন। শুক্রবার ও শনিবার সারাদিন ফরিদপুর শহরের ব্রহ্ম সমাজ সড়ক,সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনের সড়ক,শিশু একাডেমীর সামনের সড়ক, বায়তুল আমান সড়ক, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের চারপাশের সড়কে শিক্ষক মোঃ নুরুল ইসলাম এ বীজ রোপন করেন। এর আগে সকালে এই তালগাছ রোপনের কর্মসুচি উদ্বোধন করেন সরকারী রাজেন্দ্র কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর অসিম কুমার সাহা। তালবীজ রোপনের সময় শিক্ষককে সাহায্য করেন তাঁর তিন ছাত্র সুস্ময় মুখার্জী, লাহিন মুনকার ও আবির এহসান।
তালের বীজ রোপনের সময় সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কের পাশে শাবল দিয়ে মাঠি কুপিয়ে গর্ত করে ওই গর্তে রোপন করা হচ্ছে তালের বীজ। গভীর মমতায় ও চরম একাগ্রতায় তিন শিক্ষার্থীকে নিয়ে কাজটি করছেন ওই শিক্ষক।
ফরিদপুর শহরের লালের মোড় এলাকার বীরমুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুর রহমানের পুত্র মোঃ নুরুল ইসলাম ফরিদপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক।নূরুল ইসলাম জানান, অনেক দিনের স্বপ্ন সমাজের জন্য কিছু করা। প্রতিমাসে অন্তত একটি ভালো কাজ নিজের অর্থায়নে আমি করতে চাই। এ লক্ষ্যেই এ উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।
এর আগে গত এপ্রিল মাসে তিনি রিক্সা চালকদের মধ্যে সকালের নাস্তা বিতরণ করেছেন, গত মে মাসে দুঃস্তদের মাঝে সেমাই, চিনি ও গুড়া দুধ বিতরণ করেছেন, জুনে এক বৃদ্ধার ঈদের যাবতীয় খরচ বহন করেছেন, জুলাই মাসে শহরে রোপন করেছেন ২০টি কৃষ্ণচূড়া ও রাধাচূড়ার গাছ।
নূরুল ইসলাম জানান, প্রতি সপ্তাহে তিনি এ তালের বীজগুলোর নজরদারি ও রক্ষণাবেক্ষণ করবেন যাতে গাছগুলি পরিপূর্ণ ভাবে বেড়ে উঠতে পারে। এ তালের চাড়া গজানোর পর আগামী বছর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকীতে তিনি ১০০টি তালের চাড়া বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করবেন।
তিনি বলেন, প্রতিমাসে একটি করে ভালো কাজ করবেন। তা হতে পারে গাছ রোপন, দরিদ্র কোন শিক্ষার্থীর ভর্তির ব্যবস্থা করা, অসহায় দুঃস্থ্যদের পাশে দাঁড়ানো।