সরে গেলেন ১০ লঙ্কান ক্রিকেটার, পাকিস্তান বলছে ‘খেলা হবে’

প্রকাশিত

স্পোর্টস ডেস্ক-

নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে পাকিস্তান সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিলেন শ্রীলঙ্কার ১০ ক্রিকেটার। তারপরও আশা ছাড়ছে না পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তারা বলছে, যা কিছুই হোক, সফরটা হবে।

২০০৯ সালের মার্চে পাকিস্তানের লাহোরে এই শ্রীলঙ্কা দলের ওপরই সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিল। এরপর থেকে সেখানে বড় কোনো দল খেলতে যায় না।

তবে পিসিবি দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে বদ্ধ পরিকর। জিম্বাবুয়ের মতো দলগুলোকে তারা সফর করিয়েছেও। এছাড়া যুব দল কিংবা বিভিন্ন দেশের নারী দলকে দেশে নিতে পেরেছে। পিসিবির মূল উদ্দেশ্য, বিশ্বকে একটা বার্তা দেয়া যে-পাকিস্তান এখন নিরাপদ।

এর মধ্যে লঙ্কান খেলোয়াড়দের বেঁকে বসা কিছুটা তো অস্বস্তিকরই। লঙ্কান বোর্ড অবশ্য খেলোয়াড়দের ওপর চাপ দিচ্ছে না। তারা বলেছে, যদি কেউ সরে যেতে চায়, সরে যেতে পারে। এমন ঘোষণা শোনার পর নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা এবং সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ ও থিসারা পেরেরাসহ ১০ ক্রিকেটার।

তবে এসব নিয়ে ভাবছে না পিসিবি। বোর্ডের একজন কর্তা বলেন, ‘আমরা বুঝতে পারছি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড কিসের মুখোমুখি হয়েছে। সেটাও জানি যে তারা কোনো খেলোয়াড়কে এই সফরে আসার জন্য চাপ দিতে পারবে না। তারপরও সফরটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

কি কারণে গুরুত্বপূর্ণ সেটাও ব্যাখ্যা করলেন ওই কর্তা। তিনি বলেন, ‘যদি এই সফরটা সফলভাবে শেষ করা যায়, তবে ভেবে দেখুন পাকিস্তানে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ খেলতে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড কিংবা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কোনো মাঠে না খেলার কথা তুলতে পারবে কি না! কোন খেলোয়াড় আসছে, সেটার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শ্রীলঙ্কা জাতীয় দল পাকিস্তান সফর করছে। বোর্ডের কাছে এটাই গুরুত্বপূর্ণ।’

এই সফরে তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলবে শ্রীলঙ্কা। ২৫ সেপ্টেম্বর তারা পা রাখবে করাচিতে।