সরাইলে দেশীয় অস্ত্র জমা দিয়ে ঝগড়া না করার শপথ।

প্রকাশিত

সরাইল, প্রতিনিধি –

 

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া  সরাইল উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের তেরকান্দা গ্রামের লোকজন স্থানীয় ভাবে আর দাঙ্গা ফেসাদে জড়াবে না। এরই পরিপ্রেক্ষিতে দেশীয় অস্ত্র জমা দিয়ে ঝগড়া না করার শপথ নেয় তারা।
 বুধবার  বিকালে নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান কাজল চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এস এম মোসা। সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহদাত হোসেন। সরাইল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও প্রেসক্লাবের সভাপতি বদর উদ্দিন। সাংবাদিক শফিকুর রহমান। আবদুল আহাদ টেনু। ইউপি সদস্য ফজলুর রহমান। ফরিদ উদ্দিন মৃধা প্রমুখ। এছাড়াও গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দরা উপস্থিত  ছিলেন।
এসময় সরাইল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাহদাত হোসেন তেরকান্দা গ্রামের লোকজনের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আজকে আল্লাহর কাছে এখানে সবাই হাত তুলে শপথ করে যান আর কেউ ঝগড়া বিবাদে জড়াবেন না। যারা ঝগড়া করে দাঙ্গাবাজি করে তারা খুবই নিকৃষ্ট। আপনারা দুইজন ঝগড়া করবেন আর এই ঝগড়া পুরো এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে যাবে, দুইদলে ভাগ হয়ে ঝগড়ায় মিলিত হবেন এরা কেউ  মানুষ না। মানুষ কখনো ঝগড়া বা দাঙ্গায় জড়িত হতে পারে না, দুই দলই এখানে নিকৃষ্ট।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএস এম মোসা বলেন, আপনারা কেউ দল বেধে ঝগড়ায় লিপ্ত হবেন না, লুটতরাজ চালাবেন না।  আপনারা ১০টাকার জন্য ঝগড়া করে ১০লক্ষ টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হবেন, কেউ পঙ্গুত্ব বরণ করবেন এইসব করা যাবে না। এই ঝগড়া ঝাটি দাঙ্গা থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে, প্রয়োজনে আইনের আশ্রয় নিবেন।
পরে উপস্থিত সকলকে হাত তুলে শপথ করান, তারা সকলে শপথ করে বলেন আর কখনো ঝগড়ায় লিপ্ত হবে না। এরপর তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র  জমা দেন।  অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন আমীর আলী।