বোয়ালমারীতে ডাকাতের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত

বোয়ালমারী প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে ১২সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে একাধিক মামলার আসামী কুখ্যাত ডাকাত রিপন কাজীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার করেছে বোয়ালমারী থানা পুলিশ। সে উপজেলাধিন শেখর ইউনিয়নের বাগডাঙ্গা গ্রামের ছিরু কাজীর ছেলে।
থানা সুত্রে জানা যায়, রিপন কাজী অস্ত্র, মাদক ও চুরি-ডাকাতির ১৪টি মামলার আসামী। আজ সকালে সহ¯্রাইল বাজার বণিক সমিতির সভাপতি মোঃ চুন্নু বিশ্বাসের ফোন পেয়ে বোয়ালমারী থানা পুলিশ মাঝকান্দি-ভাটিয়াপাড়া আঞ্চলিক মহা-সড়কের উপজেলাধিন কলিমাঝি গ্রামের লায়েক মিয়ার মেহগনি বাগান থেকে লাশটি উদ্ধার করে। পুলিশ ও এলাকাবাসীর ধারনা মাদক অথবা ডাকাতির মালামাল ভাগাভাগি নিয়ে রিপন কাজী খুন হতে পারে।
বোয়ালমারী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শহিদুল ইসলাম জানান, কুখ্যাত এ ডাকাত গত ৬ মাস আগে ২০০পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, মাদকের আধিপত্য বা ডাকাত দলের অভ্যন্তরিন কোন্দলে তাকে হত্যা করা হতে পারে। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহ ফরিদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
ফরিদপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।