পিরোজপুরে থানা থেকে পালিয়ে যাওয়া আসামী আট ঘন্টা পর গ্রেফতার

প্রকাশিত

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরে একটি হত্যা মামলার গ্রেফতারকৃত সন্দেহভাজন আসামী থানা থেকে পালিয়ে যাওয়ার ৮ ঘন্টা পর পুণরায় তাকে গ্রেফতার করতে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে পিরোজপুর সদর থানা থেকে আসামী সালমান খান (২৪) পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ ব্যাপক অভিযান চালিয়ে দুপুর ৩টার দিকে তাকে সদর উপজেলার চলিশা চাঁন মাঝির ব্রীজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। সালমান উপজেলার কলাখালী গ্রামের দুলাল খানের ছেলে। কলাখালীর যুবলীগ কর্মীর জয় হত্যা মামলা ছাড়াও তার বিরুদ্ধে মাদক ও নারী নির্যাতনসহ চারটি নিয়মিত মামলা রয়েছে।
থানা সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে আসামী সালমান পানি পান করতে চাইলে দায়িত্বরত সেন্ট্রি হাজতখানার দরজা খোলেন। এসময় সালমান তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এবং দৌড়ে থানা থেকে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নুরুল ইসলাম বাদল জানান, সকালবেলায় দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা ও কর্মচারীর উপস্থিতি কম থাকার সুযোগ নিয়ে আসামী পলায়নের সুবিধা পায়। ঘটনার খবর পর থেকে পিরোজপুর ও সন্নিহিত জেলা সমুহে পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হয়। পরে দুপুর ৩টার দিকে তাকে চলিশা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও তদন্ত) মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, পুলিশের ব্যাপক অভিযান চালিয়ে পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। তবে থানা থেকে আসামী পলায়নের ঘটনায় পুলিশের কারও অবহেলা পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।