ফরিদপুরে ত্রাণের টিন আত্মসাতের মামলায় সাবেক ইউপি সদস্যের কারাদন্ড

প্রকাশিত

মাহবুব হোসেন পিয়াল,ফরিদপুর-
ফরিদপুরে ত্রাণের টিন আত্মসাতের মামলায় এক সাবেক ইউপি সদস্যকে দোষী সাব্যস্ত করে এক বছর সশ্রম কারাদন্ড ও নগদ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে সাবেক ওই ইউপি সদস্যকে আরও ছয় মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড ভোগ করতে হবে।
গতকাল বুধবার দুপুরে ফরিদপুরের বিশেষ জজ আদালতের হাকিম মো. মতিয়ার রহমান এ আদেশ দেন। ওই সময় দন্ডপ্রাপ্ত সাবেক ইউপি সদস্য মো. ফরহাদ মাতুব্বর (৪৫) আদালতে হাজির ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাকে আদালতের এজলাস হতে জেলা কারাগারে নিয়ে যায় কোর্ট পুলিশ।
আদালত ১৯৪৭সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে এ দন্ডাদেশ প্রদান করেন।
ফরিদপুর দুদকের আইনজীবী মো. মজিবর রহমান জানান, মো. ফরহাদ হোসেন মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার বাঁশকান্দি ইউনিয়নের ছয় নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ছিলেন। ইউপি সদস্য থাকাকালীন সময়ে তিনি দুই ব্যাক্তির নামে ১৬টি ত্রাণের টিন উত্তোলন করে নিজ বাড়িতে ঘর নির্মাণ করেন। গোপনে এ সংবাদ জেনে শিবচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল হোসেন তালুকদার ইউপি সদস্য ফরহাদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ত্রাণের টিনগুলি জব্দ করেন।
এ ব্যাপারে কামরুল হোসেন নিজে বাদী হয়ে ২০০৭ সালের ২৩ জুলাই শিবচর থানায় ত্রাণের টিন আত্মসাতের অভিযোগে ইউপি সদস্য ফরহাদকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।
পরবর্তিতে এ মামলাটির তদন্তভার দুদক গ্রহণ করে। তদন্ত করেন দুর্নীতি দমন সমন্বিত ফরিদপুর কার্যালয়ের সাবেক সহকারি পরিচালক নূর হোসেন। তিনি (নূর হোসেন) গত ২০০৯ সালের ১২ জানুয়ারি ইউপি সদস্য ফরহাদকে ত্রাণের টিন আত্মসাতের দায়ে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) জমা দেন।