বাল্য বিয়ের সহযোগীতা করায় রাজারহাটে ভ্রাম্যমান আদালতে ২মহিলাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি-
৭নভেম্বর কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বাল্য বিয়ের সহযোগীতা করায় এবং সরকারী কর্মকর্তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালত ২মহিলাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন।
পুলিশ জানায়, উপজেলার চাকিরপশার ইউনিয়নের চাকিরপশার তালুক আমবাড়ী গ্রামের রফিকুল ইসলামের পুত্র মোখলেছুর রহমানের সাথে একই ইউনিয়নের নাককাটিহাট এলাকার রফিকুল ইসলামের কন্যা নাককাটিহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর ২মাস আগে বিয়ে হয়। এ বিষয়ে উপজেলা মহিলা অধিদপ্তরে অভিযোগ দায়ের করলে বিষয়টি যাচাই করার জন্য ৭নভেম্বর বিকালে ওই দপ্তরের ট্রেইনার রেজিয়া আক্তার ও অফিস সহকারী রফিকুল ইসলাম বরের বাড়ীতে যায়। বিষয়টির সত্যতা পাওয়ায় বরের চাচাতো বোন রোমানা বেগম(৩৮) ও জোসনা বেগম(৩৫) বরের পিতা-মাতাকে পালিয়ে দিয়ে ওই কর্মকর্তাদের গালিগালাজ করে লাঞ্চিত করার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে রাজারহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে অভিযুক্ত ২ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ওইদিন সন্ধ্যায় রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহা:যোবায়ের হোসেন ভ্রাম্যামন আদালত পরিচালনা করে তাদের ৫০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহরিনা জাহান।এব্যাপারে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহরিনা জাহান বলেন, বরের পিতাকে পালিয়ে দেয়ার সহযোগীতা এবং সরকারী কাজে বাধা প্রদান করে ২ অফিসারকে লাঞ্চিত করায় পুলিশ তাদের আটক করে।