অবসরের হুমকি ওয়ার্নারের

প্রকাশিত

করোনাভাইরাসের কারণে ক্রিকেটাঙ্গনে অনেক নতুন নতুন নিয়ম যুক্ত হচ্ছে। ‘জৈব সুরক্ষা বলয়’ তৈরি করে ক্রিকেটারদের রাখা হচ্ছে। সেখানে ক্রিকেটারদের পরিবারের সদস্যদের আসার অনুমতি নেই। সেই বলয় ছেড়ে বের হওয়ারও উপায় নেই। এ রকম পরিস্থিতিতে পরিবারের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকার সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না অজি তারকা ডেভিড ওয়ার্নার। প্রয়োজনে তিনি ক্যারিয়ার নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ব্যাপারেও ভাববেন।

করোনা পরবর্তী সময়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যস্ত ক্রীড়াসূচি আছে। প্রথমে ইংল্যান্ড সফর, তারপর আরব আমিরাতে আইপিএল। আইপিএল শেষ হওয়ার পরেই ভারতের বিপক্ষে হোম সিরিজ। আর এখন যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে জৈব সুরক্ষা বলয়ের ভিতরেই থাকতে হবে ক্রিকেটারদের। পরিবারের সদস্যদেরও সেখানে প্রবেশাধিকার নেই। কবে এই পরিস্থিতির উন্নতি হবে কেউ বলতে পারে না। কিন্তু ওয়ার্নার এক সাক্ষাতকারে বলেছেন, পরিবার ছেড়ে বেশিদিন তার পক্ষে থাকা সম্ভব নয়।

ওয়ার্নার বলেন, ‘আমার তিন মেয়ে ও স্ত্রীর কথা আগে ভাবতে হবে। তাদের প্রতি আমার অনেক দায়িত্ব আছে। পরিবারের কথা সবার আগে ভাবতে হবে। কিন্তু পরিস্থিতি এখন যে রকম, তাতে আমাকে নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবনা চিন্তা করতে হবে। টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়ায় হলে খেলা সহজ হতো। আমাকে দেখতে হবে, আমি নিজে কেমন অবস্থায় আছি। আমার মেয়েদের স্কুলের খবর রাখতে হবে। তারা আমার যে কোনো সিদ্ধান্তের বড় অংশ। এটা আমার জন্য অনেক বড় পারিবারিক সিদ্ধান্ত। বায়ো সিকিওরিটি নিয়মের জন্য পরিবারকে পাশেও পাব না।’