অভিনয়ের মাধ্যমে মানুষের মন জয় করতে চান অভিনেতা লতিফ খান।

প্রকাশিত

মারুফ সরকার,বিনোদন প্রতিবেদক:-
অভিনয়ের মাধ্যমে বড় হবার স্বপ্ন দেখে অভিনেতা লতিফ খান। লতিফ খাঁন সিরাজগঞ্জ জেলা তাড়াশ উপজেলার তালম গ্রামে মুসলিম পরিবারে জম্মগ্রহণ করেন ।লতিফ এর বাবার নাম মোঃ আতাহার ও মায়ের নাম মোছাঃ লুৎফা খাতুন। বাবা ব্যবসায়ী,মা গৃহিণী, তিন ভাই বোন,সবার বড় লতিফ খান । লতিফ বস্তুল ইসহাক দ্বিমূখী উচ্চবিদ্যালয় হতে ২০০৬ এস,এস,সি ও খুবজীপুর মোজাম্মেল হক ডিগ্রী কলেজ হতে ২০০৮ সালে এইচ,এস,সি,এবং সরকারি বাঙলা কলেজ হতে বাংলা বিভাগে অনার্স মাস্টার্স শেষ করেছে ।লতিফ খান কিভাবে অভিনয়ের জগতে আসলেন সেই বিষয়ে কথা হয় তার সাথে তিনি বলেন আমরা যাই অভিনয় করি না কেন সেটা যদি ভাল হয় তাহলে বাংলাদেশ পরিবর্তন হবে। এ ব্যাপারে লতিফ খান জানান , আমি ২০০৮ সাল হতে বাঙলা কলেজ যুব থিয়েটারে মঞ্চো নাটক দিয়ে কাজ শুরু করি,মঞ্চ নাটকের মধ্যে মুজিব মানে মুক্তি,বাংলার মুখ,দৌড়র,সমাজের ভাইরাস,ইত্যাদি নাটকে মঞ্চে অভিনয় করেছি,এছাড়া আমি টিভি নাটকে ২০১০ সালে প্রথম কাজ শুরু করি আমার অভিনীত উল্লেখ্য যোগ্য নাটকের মধ্যে পিরিত, কমন সেন্স, একজন রিক্সাওয়ালা, অপেক্ষা২,স্বপ্ন ভাঙ্গলো চিকনগুনিয়া, ফালতু রসিদ,মেসি বনাম নেইমার,পাগলের ডাক্তার এছাড়া টেলিফিল্ম সেতু,বড় পর্দায় সিনেমা শূন্য,ছুরি নগর ইত্যাদি। রুহুল আমিন পথিক এর রচনা ও নয়ন মিনটন এর পরিচালনা মেসি বনাম নেইমার ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে আশা করি পাগলের ডাক্তার ও দর্শক জনপ্রিয়তা অর্জন করবে।আর আমি দর্শকদের একটা কথা বলবো বেশি বেশি বাংলা নাটক,টেলেফিল্ম ও বাংলা ছবি দেখেন। আপনারা আমাদের অভিনয় দেখলেই আমরা সার্থক হবো।