অসহায় কৃষকের পাশে দাড়ালো টঙ্গী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ

প্রকাশিত

শেখ রাজীব হাসান,বিশেষ প্রতিনিধিঃ গাজীপুরের মাটি ও মানুষের প্রানপ্রিয় নেতা যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল এমপি’র নির্দেশনায় মরণঘাতী করোনা ভাইরাসেল ভয়ানক থাবায় ক্ষতিগ্রস্ত এক অসহায় কৃষকের পাশে দাড়িয়েছেন টঙ্গী সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী মনজুর। আজ ২২ই এপ্রিল বুঝবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫০নং ওয়ার্ড চানকিরটেক এলাকার দরিদ্র কৃষক আনোয়ার হোসেনের হায়দারাবাদ ব্রিজ সংলগ্ন একটি জমির ধান কাটা হয়।

এসময় ছাত্রলীগ নেতা কাজী মনজুরের নেতৃত্বে দরিদ্র কৃষকের ধান কাটায় যোগ দিয়ে সহযোগীতা করেন ছাত্রলীগ নেতা, শাহিন হোসেন, সেলিম খান,মেহেদি হাসান শিশির, রফিকুল ইসলাম ফিরোজ সরদার, মিরাজুর রহমান রায়হান, সুমন ইসলাম জয়, কাজী জাহিদ হাসান জয়, রফিক হাসান, ফারুক হোসেন, সোহেল বাবু, তানজিদুল ইসলাম, দ্বীন ইসলাম নীরব, সিফাত হোসেন রেইন, আমীর হামজা, বাবু আহমেদ ও স্থানীয়দের মধ্যে জাহিদুল ইসলাম, শেখ সোহেলসহ আরো অনেকে।


এসময় দরিদ্র কৃষক আনোয়ার হোসেন বলেন, করোনা ভাইরাসের কারনে বাড়ি থেকে বের হতে না পারায় কোন কাজ করতে পারছি না টাকা পয়সাও নেই কোন রকম খেয়ে না খেয়ে বেচে আছি। কিছুদিন যাবত চিন্তা করতেছিলাম মাঠের এই ধানগুলোর কথা। ধান পেকে গেছে আকাশের অবস্থা ও তেমন ভালোনা। আমার কাছে তেমন টাকা পয়সাও নেই যে শ্রমিকদের নিয়ে ধান কাটাবো। ছাত্রলীগের নেতা কাজী মনজুর আমাকে যে উপকার করলো তা আমার সারা জীবন মনে থাকবে। আমি সারে তিন বিগা জমিতে ধান রোপন করেছি। আজকে ছাত্রলীগের ভাইয়েরা প্রায় আড়াই বিগারো বেশী জমির ধান কেটে প্রায় আধা মাইল রাস্তা হেটে এই ধানের বোঝা গুলো পৌছে দিয়েছে। দুপুরের খাবারের ব্যাবস্থা ও করে দিয়েছে এবং বলেছে আগামীকাল বাকী এক বিগা জমির ধান কেটে দিবে। এর আগেও কাজী মনজুর ভাইয়ের মাধ্যমে কিছু খাদ্য সামগ্রী পেয়েছিলাম। আমি তাদের কাছে চীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সবাই এমন ভাবে আমাদের মতো অসহায় মানুষের পাশে দাড়ালে এদেশ অবশ্যই আবার উজ্জল হয়ে উঠবে।