আদালত: অনুমতি ছাড়া নারীকে কোনোভাবেই স্পর্শ নয়

প্রকাশিত

অনুমতি ছাড়া একজন নারীকে কেউ কোনোভাবেই স্পর্শ করতে পারে না বলে রায় দিয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লির একটি আদালত। দেশটির উত্তর প্রদেশ রাজ্যে নয় বছরের এক শিশুর উপর যৌন নির্যাতনের এক মামলায় আদালত এই রায় দেন। এর আগে ওই অপরাধে অভিযুক্ত ছবি রামকে আদালত দোষী সাব্যস্ত করেন।আদালতের অতিরিক্ত দায়রা বিচারক সীমা মইনি বলেন, একজন মানুষের শরীর পুরোপুরি তার নিজস্ব। নারী বলে তাকে এই অধিকারের বাইরে রাখার সুযোগ নেই। নারীর শরীরের ওপর একমাত্র অধিকার তার নিজেরই। যে উদ্দেশ্যেই হোক না কেনো, একজন নারীর শরীরে হাত দেয়ার অধিকার কারো নেই।

আদালত বলেন, অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, পুরুষরা নারীদের গোপনীয়তার অধিকারকে স্বীকার করতে চাচ্ছে না। নারীদের যৌন নিগ্রহের আগে তারা একবারও নারীদের গোপনীয়তার অধিকারের বিষয়ে ভাবে না।

পুরুষের এমন আচরণ থেকে শিশুকন্যা ও নাবালিকারাও রেহাই পাচ্ছে না উল্লেখ করে আদালত বলেন, যেসব মানুষ নারীদের অধিকার ভুলে তাদের সঙ্গে ‘জোর’ করতে ভালোবাসে তারা বিকৃতমনস্ক।

ভারতের মতো মুক্তচিন্তার স্বাধীন, দ্রুত অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাওয়া এবং প্রযুক্তিগত দিক থেকে শক্তিশালী একটি দেশে এই ধরনের ঘটনা খুবই দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করেন আদালত।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে দিল্লির মুখার্জিনগরে একটি নয় বছরের শিশু ছবি রামের হাতে শ্লীলতাহানির শিকার হয়। আদালত পর ওই অভিযুক্তকে ১০ হাজার রুপি জরিমানা করেন এবং ওই অর্থ থেকে শিশুটিকে পাঁচ হাজার রুপি দেয়ার আদেশ দেন।