ইতালি ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে

প্রকাশিত

করোনাভাইরাসের  কারণে সৃষ্ট  লকডাউন  পরিস্থিতি শিথিল করছে ইউরোপের দেশ ইতালি দেশটির সরকার এক ডিক্রি সই  করেছে, যা জুনের পর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিষয়টি অনুমোদন করে  আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়ার পাশাপাশি আঞ্চলিক নিষেধাজ্ঞাও  একই দিন তুলে নেবে দেশটি

আজ শনিবার বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে তথ্য জানানো হয়এটিকে দুই মাসের বেশি লকডাউনের পর দেশটির অর্থনীতি পুনরায় চালু করার প্রচেষ্টার একটি বড় পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে

 করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর হার ইতালিতে। তবে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে এখানে সংক্রমণের তীব্রতা কমেছে

দেশটিতে করোনায় সংক্রমিত হয়ে ৩১ হাজার ৬০০ মানুষ মারা গেছেন। যা যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাজ্যের পর তৃতীয় সর্বোচ্চ

গত ফেব্রুয়ারিতে ইতালির উত্তরাঞ্চলে করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় ইউরোপে প্রথম দেশ হিসেবে দেশজুড়ে লকডাউন ্যবস্থা চালু করা হয়। মাসের শুরুর দিক থেকে লকডাউন শিথিল করতে শুরু করে ইতালি। ওই সময় কারখানা পার্ক খুলে দেওয়া হয়

ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ কন্তে আজ শনিবার সকালে নতুন ডিক্রিতে সই করেছেন। দেশটির কয়েকটি অঞ্চল থেকে দ্রুত লকডাউন তুলে নেওয়ার কথা বলা হলেও কন্তে বলেন, সংক্রমণের দ্বিতীয় ধাক্কা এড়াতে ধীরে ধীরে সব কিছু চালু করা হবে। ১৮ মে থেকে দোকান রেস্তোরাঁ চালু হবে, যেখানে সামাজিক দূরুত্ব মানতে হবে। ওই দিন থেকে ্যাথলিক চার্চও খুলে দেওয়া হবে। সেখানে মাস্ক পরে সামাজিক দুরূত্ব মেনে চলতে হবে

আগামী জুন ইতালির আকাশপথের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে

এক সময় করোনাভাইরাস ছড়ানোর কেন্দ্রে পরিণত হওয়া ইতালি দৈনিক মৃত্যুহার কমার লক্ষণ দেখে নতুন ঘোষণা দিচ্ছে।  ২৭ মার্চ দেশটিতে একদিনে যেখানে ৯০০ জনের মৃত্যু ঘটে, গতকাল সেখানে মারা গেছে ২৬২ জন

ইতালির সরকার দেশটির ্যবসায়ী পরিবারের জন্য উদ্দীপনামূলক ্যাকেজ হিসেবে ৫৫ বিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্দের ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপজুড়ে করোনাভাইরাসে মৃত্যুহার কমে আসায় লকডাউন শিথিল হতে শুরু করেছে। পর্তুগাল, স্পেন গ্রিস তাদের করোনা বিষয়ক ব্যবস্থা শিথিল করেছে